করোনা রোধে লকডাউনের আওতায় ঢাকা থেকে সব আন্তর্জাতিক রুটে গতকাল রাত ১২টায় বিমান চলাচল বন্ধ করে দিয়েছে বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ। তবে জরুরি অবতরণ, কার্গো বিমান, এয়ার অ্যাম্বুলেন্স ও বিশেষ ফ্লাইট চলতে পারবে। আগামী এক সপ্তাহ এ অবস্থায় চলবে। অভ্যন্তরীণ রুটে সরকারি-বেসরকারি সব ফ্লাইট ৪ এপ্রিল থেকে বন্ধ রয়েছে, যার মেয়াদ আগামী ২০ এপ্রিল পর্যন্ত তা বাড়ানো হয়েছে। বাংলাদেশ বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের (বেবিচক) চেয়ারম্যান এয়ার ভাইস মার্শাল মো. মফিদুর রহমান এসব তথ্য নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন, কবে নাগাদ বিমান চলাচল শুরু হবে, তা নির্ভর করছে উদ্ভূত করোনা পরিস্থিতিতে সরকারের নির্দেশনার ওপর। বেবিচক সংশ্নিষ্টরা জানিয়েছে, বিশেষ ফ্লাইটে যাত্রী পরিবহনের ক্ষেত্রে বড় উড়োজাহাজে ২৬০ এবং ছোট উড়োজাহাজে ১৪০ জনের বেশি যাত্রী নেওয়া যাবে না। এসব ফ্লাইটের যাত্রীদের যাত্রার ৭২ ঘণ্টার মধ্যে আরটি-পিসিআর পদ্ধতিতে করোনা পরীক্ষার নেগেটিভ সার্টিফিকেট সঙ্গে থাকতে হবে। বিশেষ অনুমতিপ্রাপ্ত (বিশেষ ফ্লাইট) ফ্লাইটের যাত্রীরা দেশে এলে ১৪ দিন সরকার নির্ধারিত কোয়ারেন্টাইন সেন্টার অথবা নিজ খরচে সরকার নির্ধারিত হোটেলে কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে।

মন্তব্য করুন