আলী ইউসুফ একজন মুদ্রণ ব্যবসায়ী। মোটা দাগে এই তার পরিচিতি। কিন্তু করোনাকালে তিনি হয়ে উঠেছেন অনন্য একজন মানুষ। দেশে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শুরু হওয়ার পর মৃতদের সৎকারের দায়িত্ব তুলে নিয়েছেন নিজের কাঁধে। সিটি করপোরেশন ও স্থানীয়দের সহায়তায় সৎকারসহ করোনা সংক্রমিত ব্যক্তিদের নানা সেবা দিয়ে যাচ্ছেন তিনি।

ময়মনসিংহ নগরীর ছোট বাজার এলাকায় আলী ইউসুফের মুদ্রণ শিল্পের প্রতিষ্ঠান। ব্যবসার পাশাপাশি তিনি নিয়মিত রক্তদান করেন। তিনি একজন ছড়াকারও। সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক কার্যক্রমের সঙ্গেও যুক্ত রয়েছেন। করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব শুরুর পর আলী ইউসুফের অন্যসব পরিচয় ছাপিয়ে তিনি হয়ে উঠেছেন করোনা আক্রান্তদের ভরসার এক নাম। করোনা আক্রান্তদের তিনি বিভিন্ন সেবা দিয়ে যাচ্ছেন। এর মধ্যে শ্বাসকষ্টের রোগীদের জন্য বিনামূল্যে অক্সিজেন দেওয়া, বাসায় থাকা রোগীকে প্রয়োজনীয় যে কোনো সেবা দেওয়া, কেউ হাসপাতালে ভর্তি হতে চাইলে তাকে হাসপাতালে নিতে অ্যাম্বুলেন্সের ব্যবস্থা করা, আক্রান্ত ব্যক্তির সামর্থ্য না থাকলে ফ্রি সেবা দেওয়া এবং করোনায় মৃতদের সৎকারের ব্যবস্থা করা। তবে মাত্র ছয়টি অক্সিজেন সিলিন্ডার তাদের কাছে মজুদ রয়েছে। এ কারণে অক্সিজেন সেবা সিটি করপোরেশন এলাকায় দেওয়া হচ্ছে। আলী ইউসুফ এ পর্যন্ত করোনায় মৃত ২৫ জনের সৎকার করেছেন। অবশ্য এতে তাকে অন্যরাও সহযোগিতা করেন। মৃতদেহ সৎকারে সিটি করপোরেশন ও স্থানীয় উপজেলা প্রশাসন নিরাপত্তাসামগ্রীসহ অন্যান্য উপকরণ দিয়ে সহযোগিতা করে। সৎকার কাজে সিটি করপোরেশনের তিনটি টিমের মধ্যে দুটি টিমের নেতৃত্ব দেন তিনি।

মন্তব্য করুন