নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে শনিবার রাজধানী ঢাকাসহ সারাদেশে ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস পালিত হয়েছে। তবে করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে সব কর্মসূচিই আয়োজিত হয় স্বাস্থ্যবিধি ও সামাজিক দূরত্ব মেনে।

এদিন মেহেরপুরের মুজিবনগর স্মৃতিসৌধে সূর্যোদয়ের ক্ষণে জাতীয় পতাকা উত্তোলনের মধ্য দিয়ে দিনের মূল কর্মসূচি শুরু হয়। সকালে জনসমাগম এড়িয়ে সেখানে স্থানীয় প্রশাসন, আওয়ামী লীগসহ বিভিন্ন দল ও সংগঠনের পক্ষ থেকে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়।

ভোরে রাজধানীর ধানমন্ডির বঙ্গবন্ধু ভবনসহ দলের কেন্দ্রীয় ও সব জেলা কার্যালয়ে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলনের মধ্য দিয়ে আওয়ামী লীগের কর্মসূচি শুরু হয়। আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের নেতৃত্বে দলের কেন্দ্রীয় নেতারা সকালে ধানমন্ডি বঙ্গবন্ধু ভবন প্রাঙ্গণে জাতির পিতার প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা জানান।

এ সময় আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য মতিয়া চৌধুরী, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ, আ ফ ম বাহাউদ্দীন নাছিম, সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন, বিএম মোজাম্মেল হক, মির্জা আজম, অ্যাডভোকেট আফজাল হোসেন, শফিউল আলম চৌধুরী নাদেল, দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ূয়া, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সম্পাদক প্রকৌশলী আবদুস সবুর প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। এ ছাড়া আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফের নেতৃত্বে দলের কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দল মুজিবনগর স্মৃতিসৌধে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে। মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক সকালে বঙ্গবন্ধু ভবন প্রাঙ্গণে জাতির পিতার প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান। এ সময় মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব তপন কান্তি ঘোষ উপস্থিত ছিলেন।

শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী বলেন, একাত্তরে পাকিস্তানিদের অনুকরণেই হেফাজতে ইসলাম দেশজুড়ে তাণ্ডব চালিয়েছে। তারা সরকারি অফিস-আদালত ও ওস্তাদ আলাউদ্দিন খাঁর বাড়ি পুড়িয়ে ধ্বংস করেছে।

এ ছাড়া মুজিবনগর দিবস উপলক্ষে ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ আওয়ামী লীগ, মহিলা আওয়ামী লীগ, জাতীয় শ্রমিক লীগ, কৃষক লীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ, যুব মহিলা লীগ, ছাত্রলীগ, বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবী পরিষদ, স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদ, তাঁতী লীগ, মৎস্যজীবী লীগসহ বিভিন্ন সংগঠনের নেতারা জাতির পিতার প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।

মেহেরপুর প্রতিনিধি জানান, মুজিবনগর স্মৃতিসৌধে শ্রদ্ধা জানানোর পর মুজিবনগরে নির্মিত শেখ হাসিনা মঞ্চে দাঁড়িয়ে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ জাতীয় পতাকা এবং সাংগঠনিক সম্পাদক ও জাতীয় সংসদের হুইপ আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন দলীয় পতাকা উত্তোলন করেন। এ সময় মেহেরপুর-১ আসনের সংসদ সদস্য জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন, মেহেরপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য মোহাম্মদ সাহিদুজ্জামান খোকন, জেলা প্রশাসক ড. মোহাম্মদ মুনসুর আলম খান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

এ সময় মাহবুব-উল আলম হানিফ বলেন, হেফাজত, জামায়াত, বিএনপি এক ও অভিন্ন। এরা প্রত্যেকেই স্বাধীনতাবিরোধী শক্তি। এই ধর্ম ব্যবসায়ী, যারা রাষ্ট্রীয় সম্পদ নষ্ট করে দেশকে ব্যর্থ রাষ্ট্র বানাতে চায়; আইনি প্রক্রিয়ার মাধ্যমে তাদেরও শাস্তির ব্যবস্থা করা হবে। তাদের বিষদাঁত উপড়ে ফেলা হবে।

মন্তব্য করুন