আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও সাবেক কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গরিব মানুষের মোবাইল ফোনে আড়াই হাজার করে টাকা পাঠিয়ে নজির স্থাপন করেছেন। শুধু করোনা মহামারিতে অসহায় মানুষের প্রতি প্রধানমন্ত্রী এমন দরদ দেখাচ্ছেন না। ১০ লাখ রোহিঙ্গাকে আশ্রয় দিয়ে, খাবার দিয়ে, বাসস্থান তৈরি করে দিয়ে বারবার প্রমাণ করছেন- সত্যিকার অর্থেই তিনি মানবতার মা।

গতকাল বৃহস্পতিবার শেরপুরের নালিতাবাড়ী উপজেলার পলাশিকুড়া উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে ঈদুল ফিতর উপলক্ষে অসহায় নারীদের মধ্যে শাড়ি বিতরণ অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। মতিয়া চৌধুরী বলেন, স্বাধীন হওয়ার পর দেশে রাস্তা ছিল না, রেললাইন ছিল না, ব্রিজ ছিল না। তখন বঙ্গবন্ধু বিদেশ থেকে যত সাহায্য পেয়েছিলেন তার নির্দেশে আওয়ামী লীগের কর্মীরা তা মাথায় করে গ্রামে গ্রামে পৌঁছে দিয়েছেন।

মতিয়া চৌধুরী সবাইকে মাস্ক পরার আহ্বান জানিয়ে বলেন, মাস্ক পরলে ৯০ ভাগ করোনা প্রতিরোধ হয়। শুধু তাই নয়, মাস্ক পরলে ধুলাবালি থেকেও রক্ষা পাওয়া যায়।

অনুষ্ঠানে নালিতাবাড়ীর ইউএনও হেলেনা পারভীন, এএসপি আফরোজা নাজনীন, পৌর মেয়র আবু বক্কর সিদ্দিক, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ফজলুল হক, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ওয়াজকুরুনী, সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল লতিফ, ফারুক আহমেদ বকুল, কৃষক লীগের যুগ্ম আহ্বায়ক আজাদ মিয়া প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

উপজেলার ১২টি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভার ২৪০০ মানুষের মধ্যে ব্যক্তিগতভাবে একটি করে শাড়ি বিতরণ করেন মতিয়া চৌধুরী।

মন্তব্য করুন