ফিলিস্তিনের বেসামরিক নাগরিকদের ওপর ইসরায়েলের হামলার তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন বিভিন্ন রাজনৈতিক-সামাজিক সংগঠনের নেতা ও বিশিষ্ট ব্যক্তিরা। সোমবার দেওয়া বিবৃতিতে তারা ফিলিস্তিনি জনগণের নিরাপত্তা ও শান্তি-স্থিতিশীলতা নিশ্চিত করতে বিশ্ব সম্প্রদায়ের প্রতি আহ্বান জানান।

লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টি-এলডিপি মহাসচিব ড. রেদোয়ান আহমেদ বিবৃতিতে বলেন, ইসরায়েল নির্বিচারে বিমান হামলা চালিয়ে ফিলিস্তিনিদের হত্যা করছে। বরাবরের মতো এমন মানবতাবিরোধী কর্মকা চালানোর পরও তাদের বিরুদ্ধে বিশ্ব সম্প্রদায়ের কোনো পদক্ষেপ নেই। এমনকি প্রতিবেশী আরব দেশগুলোও একেবারে নির্বিকার।

গণফোরামের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা মহসীন মন্টু, নির্বাহী সভাপতি অধ্যাপক আবু সাইয়িদ ও অ্যাডভোকেট সুব্রত চৌধুরী যৌথ বিবৃতিতে বলেন, যুদ্ধবাজ ইসরায়েল এর আগেও বিভিন্ন সময় ফিলিস্তিনিদের ওপর হামলা চালিয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রের নতজানু পররাষ্ট্রনীতির কারণে এ সমস্যার সমাধান হচ্ছে না।

জাতীয় প্রেস ক্লাবের উদ্যোগে গতকাল এক ভার্চুয়াল আলোচনা সভায় নেতারা সংঘাতপূর্ণ এলাকায় কর্মরত সাংবাদিকসহ ফিলিস্তিনি জনগণের নিরাপত্তা ও শান্তি-শৃঙ্খলা নিশ্চিত করতে সংশ্নিষ্ট সবার প্রতি আহ্বান জানান। জাতীয় প্রেস ক্লাবের সভাপতি ফরিদা ইয়াসমিনের সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক ইলিয়াস খানের সঞ্চালনায় অন্য নেতারাও এতে যোগ দেন।

বিশিষ্ট নাগরিকরা এক যুক্ত বিবৃতিতে অবিলম্বে ইসরায়েলের হামলা বন্ধের দাবি জানান। সেই সঙ্গে জাতিসংঘের মানবাধিকার কাউন্সিলের মাধ্যমে মানবাধিকার লঙ্ঘন ও যুদ্ধাপরাধের সঙ্গে জড়িত ব্যক্তিদের চিহ্নিত করার জন্য অবিলম্বে আন্তর্জাতিক তদন্তের দাবি জানান তারা। বিবৃতিতে স্ব্বাক্ষর করেন অ্যাডভোকেট সুলতানা কামাল, এম হাফিজউদ্দিন খান, বিচারপতি নিজামুল হক, ড. হামিদা হোসেন, খুশী কবির, ড. বদিউল আলম মজুমদার, ড. ইফতেখারুজ্জামান, রানা দাশগুপ্ত, সুব্রত চৌধুরী, জেড আই খান পান্না, তবারক হোসেন, ড. আবুল বারকাত, অধ্যাপক আসিফ নজরুল, অধ্যাপক মেজবাহ কামাল, ড. মেঘনা গুহঠাকুরতা, কাজল দেবনাথ, সৈয়দা রিজওয়ানা হাসান, ব্যারিস্টার সারা হোসেন, শামসুল হুদা প্রমুখ।

মন্তব্য করুন