বহুতল ভবনের পাঁচতলা ফ্ল্যাটে হঠাৎ করেই বিকট শব্দে গ্যাস সিলিন্ডার বিস্টেম্ফারিত হয়। তারপর পুরো ঘরে আগুন ধরে যায়। দুই বছরের শিশুকন্যা হুমাসা জান্নাতকে কোলে নিয়ে ওই ঘরেই ছিলেন সোনিয়া জান্নাত। গ্যাস সিলিন্ডার থেকে এ অগ্নিকণ্ডে মা-মেয়ে দু'জনের শরীরেই অর্ধেকের বেশি পুড়ে যায়। মা ও মেয়ে মারা যায়।

গতকাল শনিবার সকাল সাড়ে ১১টার দিকে শ্রীপুর উপজেলার মুলাইদ গ্রামের তামিশনা ফ্যাশন ওয়্যার লিমিটেড কারখানার সামনে দেলোয়ার হোসেনের বহুতল ভবনে এ ঘটনা ঘটে। মা ও মেয়েকে উদ্ধার করে দ্রুত স্থানীয় আলহেরা হাসপাতালে নেওয়া হয়। পরে তাদের ঢাকার শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে নেওয়া হয়। দুপুর ১টার দিকে সোনিয়াকে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। সন্ধ্যা ৭টার দিকে শিশু হুমাসাও মারা যায়।

আলহেরা হাসপাতালের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ডা. হুমায়ুন কবির জানান, আগুনে মায়ের ৫০ শতাংশ ও শিশুটির ৬০ শতাংশ দগ্ধ হয়।

স্থানীয়রা জানান, ভবনের পাঁচতলার পশ্চিম পাশের ফ্ল্যাটে বিকট শব্দে বিস্টেম্ফারণ ঘটে আগুন লাগে। পরে নিজস্ব ব্যবস্থাপনায় আগুন নেভানোর চেষ্টা করা হয়। স্থানীয় একটি কারখানার কর্মকর্তা গোলাম মোস্তফা ওই ফ্ল্যাটে পরিবার নিয়ে ভাড়া থাকতেন। তার বাড়ি বাগেরহাটের কাফিলাবাগ গ্রামে। নিহত সোনিয়ার ভাগিনা আরিফুজ্জামান জানান, রাতেই দু'জনের লাশ তাদের গ্রামের বাড়ি নেওয়া হয়েছে।

বিষয় : গ্যাস সিলিন্ডার বিস্টেম্ফারণ

মন্তব্য করুন