বগুড়ায় ছাত্রলীগ নেতা তাকবীর ইসলাম (২৫) হত্যা মামলার প্রধান আসামি একই সংগঠনের সরকারি আজিজুল হক কলেজ কমিটির সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রউফকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত। প্রায় চার মাস পলাতক থাকার পর রউফ গতকাল সোমবার জেলা ও দায়রা জজ আদালতে হাজির হয়ে আত্মসমর্পণ করেন। পরে তার জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন আদালত। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বগুড়ার পিপি অ্যাডভোকেট আব্দুল মতিন।

অভ্যন্তরীণ কোন্দলের জেরে গত ১১ মার্চ রাতে বগুড়া শহরের সাতমাথায় দুর্বৃত্তরা কুপিয়ে গুরুতর আহত করে জেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক তাকবীর ইসলামকে। চিকিৎসাধীন অবস্থায় ১৫ মার্চ শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মারা যান তিনি।

ওই ঘটনায় নিহত তাকবীরের মা আফরোজা ইসলাম বাদী হয়ে ছাত্রলীগ নেতা রউফসহ ২০ জনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেন। হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় ১৭ মার্চ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটি অভিযুক্ত আব্দুর রউফককে সংগঠন থেকে

বহিস্কার করে।

আব্দুর রউফ গত ২৫ মার্চ উচ্চ আদালতে গিয়ে জামিন প্রার্থনা করেন। আদালত তাকে ছয় সপ্তাহের জামিন দেন। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা বগুড়া সদর থানার এসআই আব্দুল মালেক জানান, তার জামিনের নির্ধারিত মেয়াদ শেষ হলেও করোনা পরিস্থিতির কারণে আদালতের সিদ্ধান্তে সেই সময়সীমা বাড়ানো হয়। তিনি জানান, আব্দুর রউফসহ ছয় আসামি বর্তমানে কারাগারে আছেন।

মন্তব্য করুন