ঢাকার আশুলিয়ায় এক রাতে ১৯ স্বর্ণের দোকানে ডাকাতির ঘটনায় জড়িত চক্রের ৯ সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি)। সম্প্রতি ধারাবাহিক অভিযানে দেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। তাদের মধ্যে কয়েকজন ধানমন্ডির রাপা প্লাজায় স্বর্ণের দোকানে ডাকাতিতে জড়িত ছিল। তদন্ত-সংশ্নিষ্টরা জানান, লুট করা স্বর্ণালংকার গলিয়ে পাত বানিয়ে তা বিক্রি করা হতো। এর সঙ্গে জড়িত পুরান ঢাকার তাঁতীবাজারকেন্দ্রিক একটি অসাধু সিন্ডিকেট।

গ্রেপ্তার চক্রের ব্যাপারে জানাতে গতকাল বুধবার রাজধানীর মালিবাগে সিআইডি কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। এতে সিআইডির বিশেষ পুলিশ সুপার মুক্তা ধর বলেন, ৬ সেপ্টেম্বর রাতে আশুলিয়ার ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের নয়ারহাট বাজারে ১৯টি জুয়েলার্সে ডাকাতি হয়। ৩০-৪০ জন সশস্ত্র ডাকাত স্বর্ণালংকার, টাকাসহ মোট ১ কোটি ২ লাখ ৩২ হাজার টাকার মালপত্র লুট করে। এ ঘটনায় দায়ের মামলার তদন্তে ১৫ সেপ্টেম্বর শাহানা আক্তার নামে এক নারীকে স্বর্ণ বিক্রির ২ লাখ ৪৪ হাজার ৮৪০ টাকা ও আনুমানিক ৩-৪ ভরি স্বর্ণসহ গ্রেপ্তার করা হয়। তিনি ডাকাতিতে জড়িত একজনের স্ত্রী। পরে তার তথ্যে দেশের বিভিন্ন জায়গায় অভিযান চালানো হয়। এতে ধরা পড়ে চক্রের ৯ সদস্য। পরে ঢাকার নয়াবাজার এলাকার একটি বাসায় অভিযান চালিয়ে লুট হওয়া ২০ ভরি স্বর্ণ উদ্ধার করা হয়।

মন্তব্য করুন