নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লা থেকে কৌশলে অপহরণের পর ঢাকার কেরানীগঞ্জে নিয়ে এক প্রবাসীর স্ত্রীকে আটকে রেখে একাধিকবার ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। হবিগঞ্জের মাধবপুরে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের শিকার হয়েছেন সৌদি আরব ফেরত

এক নারী। তাকেও আটকে রেখে ধর্ষণ করা হয়। এদিকে, নোয়াখালীর কবিরহাটে দ্বিতীয় শ্রেণির এক শিশু শিক্ষার্থী ধর্ষণের শিকার হয়েছে। প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর :

নারায়ণগঞ্জ :ফতুল্লায় প্রবাসীর স্ত্রীকে আটকে রেখে ধর্ষণের অভিযোগে মো. আকাশ (২৫) নামে এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে ফতুল্লার শাহজাহান রি-রোলিং মিল এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

ফতুল্লা মডেল থানার ওসি রকিবুজ্জামান বলেন, ধর্ষণের শিকার গৃহবধূর স্বামী প্রবাসী। তার স্ত্রী চার সন্তান নিয়ে ফতুল্লার লালপুরে ভাড়া থাকেন। অভিযুক্ত আকাশ তার স্বামীর নিকটাত্মীয় হওয়ার সুবাদে মোবাইল ফোনে প্রায়ই তাদের মধ্যে কথা হতো এবং তার বাসায় যাতায়াত ছিল। ওসি জানান, ১৩ সেপ্টেম্বর সকালে আকাশ ও তার বোন ফাতেমা একটি সিএনজিচালিত অটোরিকশায় ওই নারীর বাসায় গিয়ে নিজেদের বাড়িতে একটি অনুষ্ঠানের কথা বলে তাকে কেরানীগঞ্জে নিয়ে যায়। সেখানে ভয়ভীতি দেখিয়ে ২০ সেপ্টেম্বর রাত পর্যন্ত আটকে রেখে আকাশ তাকে একাধিকবার ধর্ষণ করে। পরে গভীর রাতে পালাতে সক্ষম হন ধর্ষণের শিকার গৃহবধূ। তিনি নিজ বাসায় পৌঁছার পর গত বুধবার ফতুল্লা মডেল থানায় দু'জনের নামে মামলা করেন।

মাধবপুর (হবিগঞ্জ) :মাধবপুরে সৌদি আরব ফেরত এক নারীকে বাসায় আটকে রেখে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের অভিযোগে গতকাল তিন যুবক এবং সহায়তার অভিযোগে এক নারীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। মাধবপুর থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মাঈন উদ্দিন জানান, বুধবার বিকেলে সৌদি ফেরত ওই নারীকে ফুসলিয়ে পৌরসভার কাটিয়ারায় লাকী বেগমের বাসায় নিয়ে আটকে রেখে ধর্ষণ করে তিন যুবক। এ অভিযোগে ভুক্তভোগী নারী মাধবপুর থানায় মামলা করলে এক নারীসহ চারজনকে গ্রেপ্তার করে আদালতে পাঠানো হয়েছে। গ্রেপ্তারকৃতরা হলো- বিজয়নগর উপজেলার এক্তিয়ারপুর গ্রামের আক্কাস মিয়ার ছেলে আতিক মিয়া, মাধবপুরের পূর্ব মাধবপুর গ্রামের ছোয়াব মিয়ার ছেলে জীবন মিয়া, একই গ্রামের ইদ্রিস মিয়ার ছেলে বাদশা মিয়া ও পৌরসভার কাটিয়ারা গ্রামের বাসিন্দা মাহমুদ মিয়ার স্ত্রী লাকী বেগম।

নোয়াখালী :গতকাল দুপুরে কবিরহাট পৌরসভার ৪নং ওয়ার্ডের একটি মহল্লায় ধর্ষণের শিকার হয় একটি শিশু। গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

মন্তব্য করুন