'পেঁয়াজের ওপর শুল্ক্ক কমানোর দিনই কেজিতে দর কমলো ১৫ টাকা। তার মানে, এখানে কিছু একটা আছে। ব্যবসায়ীরা লাভ করবেন, তাই বলে এত লাভ করতে হবে কেন?' এভাবেই ব্যবসায়ীদের প্রশ্নবিদ্ধ করলেন বাংলাদেশ শিল্প ও বণিক সমিতির (এফবিসিসিআই) সভাপতি মো. জসিম উদ্দিন। গতকাল রোববার রাজধানীতে নিত্যপণ্যের ব্যবসায়ীদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় তিনি তাদের নানা প্রশ্নের বাণে বিদ্ধ করেন।

জসিম উদ্দিন বলেন, 'দাম নিয়ে মুনাফেকি করবেন, তা হতে পারে না। করোনার এ সময়ে এমনিতেই মানুষের আয় কমছে। এর মধ্যে সব পণ্যের দাম বাড়লে মানুষের কষ্ট হয়। দুই-চারজনের জন্য সব ব্যবসায়ী গালি শুনবে না। দুই শতাংশ খারাপের দায় পুরো ব্যবসায়ী সমাজ নেবে না।'

এফবিসিসিআই সভাপতি বলেন, চাল, তেল, চিনি, পেঁয়াজ, শাকসবজি, মাছ, মাংস সব কিছুর দাম অস্বাভাবিকভাবে বেড়েছে। আন্তর্জাতিক বাজারে দর বৃদ্ধির কারণে হয়তো তেল, চিনির দাম বাড়তে পারে। তাই বলে পেঁয়াজের দাম হঠাৎ কেন এভাবে বাড়বে? যদি ঘাটতির কারণে দাম বাড়ে, তাহলে সরকার শুল্ক্ক প্রত্যাহারের ঘোষণার দিনই কেন ১৫ টাকা কমবে? এ ছাড়া পেঁয়াজের দাম শ্যামবাজারে ৫০ টাকা, গুলশানে ৬৫ আর শান্তিনগরে ৬৮ টাকা, এটাও গ্রহণযোগ্য হতে পারে না। সবজির দামও একেক বাজারে একেক রকম। একই শহরে দরে এত ভিন্নতা কেন থাকবে?

ঢাকার পাইকারি ব্যবসায়ী, আড়তদার ও খুচরা ব্যবসায়ীদের নিয়ে এ মতবিনিময় সভা ডাকা হয়। এফবিসিসিআই কার্যালয়ে 'নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য সামগ্রীর মজুদ, আমদানি, সরবরাহ ও মূল্য পরিস্থিতি' শীর্ষক এ মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় এফবিসিসিআইর সিনিয়র সহসভাপতি মোস্তফা আজাদ চৌধুরী বাবু, সহসভাপতি হাবিবুল্লাহ ডন ও এম এ মুমেন, বিভিন্ন বাজারের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

সভায় ব্যবসায়ীদের কেউ কেউ বলেন, চাহিদা ও উৎপাদনে সরকারের পরিসংখ্যানে সমস্যা আছে। হিসাবের গরমিল থাকায় বছর শেষে একটা সংকট তৈরি হয়। আবার পেঁয়াজ পচনশীল হলেও তা সংরক্ষণে যথাযথ ব্যবস্থা নেই। এর বাইরে বিভিন্ন চাঁদা, ইউটিলিটি বিল, ট্রেড লাইসেন্স ফিসহ বিভিন্ন কারণে জিনিসের দাম এভাবে বেড়েছে।

এফবিসিসিআইর সাবেক সহসভাপতি ও দোকান মালিক সমিতির সভাপতি হেলাল উদ্দিন দাম বৃদ্ধি এবং একেক বাজারে একেক রকম দামের পক্ষে বিভিন্ন যুক্তি দিতে থাকেন। এ সময় জসিম উদ্দিন বলেন, পক্ষ নেবেন না। আমরাও ব্যবসায়ী। ব্যবসায়ীরা ব্যবসা করবে। তাই বলে সিন্ডিকেট করে দাম বাড়াবে, এটা হতে পারে না। পক্ষ না নিয়ে ব্যবসায়ীদের সমস্যা থাকলে তা নিয়ে আলোচনা করা যেতে পারে।

মন্তব্য করুন