প্রযুক্তি বিকাশের এ যুগে আমরা নানা কাজে ইন্টারনেটের দ্বারস্থ হই। অনলাইনে এনসাইক্লোপিডিয়া_ এ ধারণা নিয়ে গড়ে ওঠা উইকিপিডিয়া ইন্টারনেট ব্যবহারকারীদের জন্য বিশাল তথ্যভাণ্ডার হিসেবে দারুণ জনপ্রিয়। তবে এর বৈশিষ্ট্য হচ্ছে, একজন সাধারণ ব্যবহারকারী এর তথ্য সংযোজন, বিয়োজন এবং সম্পাদনা করতে পারেন। এ ঝুঁকির কারণে একাডেমিক রেফারেন্স হিসেবে উইকিপিডিয়ার তথ্য অনেক ক্ষেত্রেই গ্রহণযোগ্য নয়। নতুন এক
গবেষণায় উঠে এসেছে, নিজে নিজে উইকিপিডিয়ার তথ্য ব্যবহার করে রোগ নির্ণয় বা স্বাস্থ্য পরীক্ষার চেষ্টা খুবই ঝুঁকিপূর্ণ।
যুক্তরাষ্ট্রের ক্যাম্পবেল বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা জানিয়েছেন, শারীরিক বা মানসিক কোনো সমস্যায় কেউ যদি উইকিপিডিয়য়ার শরণাপন্ন হয়ে তার রোগ নির্ণয়ের চেষ্টা করেন তবে ওই ব্যক্তি ৯০ ভাগ ক্ষেত্রেই ভুল করবেন। কারণ গবেষকরা দেখেছেন, উইকিপিডিয়ায় মেডিকেল বিষয়ক ৯০ ভাগ তথ্যই ভুল। এ ছাড়া ওষুধ কোম্পানিগুলো উইকিপিডিয়ায় বিভিন্ন ওষুধের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ার তথ্য মুছে ফেলে। এতে যে কেউ নির্বিঘ্নে ওষুধ সেবন করে ক্ষতির শিকার হতে পারে।
অত্যন্ত উদ্বেগের সঙ্গে গবেষকরা জানিয়েছেন, কোনো কোনো চিকিৎসা সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিও ইদানীং উইকিপিডিয়ার তথ্যের প্রতি ঝুঁকছেন। খবর :মেইল অনলাইন।
প্রধান গবেষক রবার্ট হ্যাস্টি জানান, গবেষকদের কখনোই উইকিপিডিয়াকে তথ্যের প্রাথমিক উৎস হিসেবে ব্যবহার করা উচিত নয়। কেননা এখানকার নিবন্ধগুলো মেডিকেল জার্নালের নিবন্ধের মতো প্রকাশের আগে অনুপুঙ্খভাবে যাচাই-বাছাইয়ের সুযোগ নেই। তাই তার পরামর্শ হচ্ছে, রোগ নির্ণয়ের জন্য চিকিৎসকের কাছে যাওয়ার বিকল্প নেই। কেননা তিনিই রোগীর রোগের ইতিহাস ও অন্যান্য বিষয় বিবেচনা করে রোগ নির্ণয় করবেন ও সেই অনুযায়ী চিকিৎসা দেবেন।

মন্তব্য করুন