সংসদে স্বাস্থ্যমন্ত্রী

চিকিৎসকরা উপজেলায় তিন বছর চাকরি করলে 'ভালো পোস্টিং'

প্রকাশ: ১০ জুন ২০১৪      

সমকাল প্রতিবেদক

স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন, মন্ত্রী হিসেবে তিনি শুধু শক্ত কথাই বলেন না, কাজও করছেন। দেশের জনগণের স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করতে বর্তমান সরকার দায়িত্ব নেওয়ার পরই নানা পদক্ষেপ নিয়েছেন। তিনি জানান, গত ৫ মাসে ৮১ জন চিকিৎসকের বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলা করা হয়েছে। ১১ জনকে চাকরিচ্যুত, ১৪ জনকে তিরস্কার ও একজনের বদলি স্থগিত করা হয়েছে। গতকাল সোমবার সংসদে স্বাস্থ্যমন্ত্রী
৩০০ বিধিতে দেওয়া এক বিবৃতিতে এসব তথ্য তুলে ধরেন।
এর আগে বিকেল ৪টায় স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে সংসদের বৈঠক শুরু হয়। আগের দিন স্বতন্ত্র সদস্য রুস্তম আলী ফরাজীর বক্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে স্বাস্থ্য খাতে অনিয়মের অভিযোগ প্রসঙ্গে নাসিম বলেন, কোথায় অনিয়ম হয় না। যেখানে সমস্যা সেখানে অনিয়ম হয়। সমস্যা না থাকলে সেখানে অনিয়মের জন্ম হয় না। তিনি তাদের জানান, তিন বছর উপজেলা পর্যায়ে চাকরি করলে পরে চিকিৎসকদের 'ভালো পোস্টিং' দেওয়া হবে। প্রণোদনা দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। গ্রামে ডাক্তার থাকে না_ এমন অভিযোগ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, বিশ্বব্যাংক চিকিৎসকদের ব্যবহারের জন্য যানবাহন দেবে। আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি, গ্রামে দায়িত্ব পালনকারী বিশেষ করে নারী চিকিৎসকদের গাড়ি দেব।
মোহাম্মদ নাসিম বলেন, চিকিৎসকদের প্রতি সহানুভূতিশীল হতে হবে। পৃথিবীর উন্নত দেশগুলোতে শনি-রোববার চিকিৎসকরা কাজ করেন না। কিন্তু বাংলাদেশের চিকিৎসকরা কাজ করেন। তাদের অনেক চাপের মধ্যে কাজ করতে হয়। প্রতিদিন ১০০ থেকে ২০০ রোগী দেখতে হয়।
চিকিৎসকদের গ্রামে থাকতে হবে উলেল্গখ করে তিনি বলেন, তদবিরে কোনো বদলি হবে না। অনিয়ম হলে কোনো ছাড় দেওয়া হবে না। সরকার প্রথম থেকেই বলে আসছে, স্বাস্থ্যসেবার জন্য গ্রামে থাকতে হবে। মন্ত্রী বলেন, চিকিৎসক স্বল্পতার জন্য আমরা উদ্বিগ্ন। ৬ হাজার ৫২১ জন বিসিএস পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েছেন। পুলিশ ভেরিফিকেশন করে নিয়োগ দেওয়া হবে। আশা করি এক-দেড় মাসের মধ্যে উপজেলাগুলোতে চিকিৎসক নিয়োগ হবে।