বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের (বিএফইউজে) উপনির্বাচনে মনজুরুল আহসান বুলবুল সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন। ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে গতকাল শুক্রবার সকাল ৯টায় জাতীয় প্রেস ক্লাবে ভোট গ্রহণ শুরু হয়, শেষ হয় বিকেল ৫টায়। ভোট গণনার পর রাত সোয়া ১০টায় ফল ঘোষণা করেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার বিশিষ্ট সাংবাদিক আবু তাহের। সভাপতি পদে বিজয়ী হওয়ার পর মনজুরুল আহসান বুলবুলকে ফুলের মালা পরিয়ে বরণ করে নেওয়া হয়। এরপর উপস্থিত সাংবাদিক নেতাদের নিয়ে মনজুরুল আহসান বুলবুল জাতীয় প্রেস ক্লাবে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান। এ সময় উপস্থিত ছিলেন প্রধানমন্ত্রীর তথ্য উপদেষ্টা ইকবাল সোবহান চৌধুরী, জাতীয় প্রেস ক্লাবের সভাপতি মুহাম্মদ শফিকুর রহমান, বিএফইউজের সহসভাপতি জাফর ওয়াজেদ, মহাসচিব ওমর ফারুক, ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মোল্লা জালাল, কুদ্দুস আফ্রাদ প্রমুখ।
এর আগে সাংবাদিকদের উদ্দেশে মনজুরুল আহসান বুলবুল বলেন, সকল সাংবাদিকের সহযোগিতা পেয়েছি। এ বিজয় মুক্তিযুদ্ধের চেতনার পক্ষের বিজয়। সাম্প্রদায়িকতার বিরুদ্ধে অসাম্প্রদায়িকতার বিজয়। যারা ইউনিয়ন দখল করতে চেয়েছিল তাদের বিরুদ্ধে বিজয়।
উপনির্বাচনে একুশে টিভির প্রধান সম্পাদক ও সিইও মনজুরুল আহসান বুলবুল, ডেইলি স্টারের সিটি এডিটর আবদুল জলিল ভূঁইয়া ও বৈশাখী টেলিভিশনের হেড অব নিউজ অশোক চৌধুরী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। মনজুরুল আহসান বুলবুল এর আগে বিএফইউজের দুইবার সভাপতি ও তিনবার মহাসচিবসহ দীর্ঘদিন ধরে সাংবাদিক ইউনিয়নে নেতৃত্ব
দিয়ে আসছেন। উপনির্বাচনে ঢাকাসহ সারাদেশে ভোটার ছিলেন ৩ হাজার ৭৯৭। এর মধ্যে ঢাকায় ভোটার ছিলেন ২ হাজার ৯৮৬। বুলবুল সর্বমোট ১০৬৫ ভোট পান। নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী অশোক চৌধুরী পান ৯৬২ এবং জলিল ভূঁইয়া পান ২৮৫ ভোট। সারাদেশে বাতিল ভোটের সংখ্যা ২০১। একইদিনে ঢাকার বাইরে চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, নারায়ণগঞ্জ, খুলনা, যশোর, রাজশাহী, বগুড়া, দিনাজপুর ও ময়মনসিংহ সাংবাদিক ইউনিয়নে এক হাজারেও অধিক ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন। ঢাকায় বুলবুল পান ৭৬৫ ভোট, অশোক পান ৬২৭ ভোট ও আবদুল জলিল ভূঁইয়া পান ২১৪ ভোট। ঢাকার বাইরে বুলবুলের চেয়ে বেশি ভোট পান অশোক চৌধুরী। তিনি পান ৩৩৫ ভোট, বুলবুল পান ৩০০ ভোট ও জলিল ভূঁইয়া পান ৭১ ভোট।
বিএফইউজের নির্বাচন উপলক্ষে গতকাল জাতীয় প্রেস ক্লাব চত্বর সাংবাদিকদের মিলন মেলায় পরিণত হয়।
২০১৫ সালের ২৭ নভেম্বর বিএফইউজের দুই বছর মেয়াদি কমিটিতে সভাপতি পদে আলতাফ মাহমুদ নির্বাচিত হন। গত ২৪ জানুয়ারি তিনি ইন্তেকাল করলে সভাপতি পদটি শূন্য হয়।
নির্বাচন পরিচালনায় প্রধান নির্বাচন কমিশনারকে সহযোগিতা করেন শাহেদ চৌধুরী, অশোক কুমার সিনহা, মহসীন আব্বাস ও উত্তম চক্রবর্তী।


মন্তব্য করুন