আসামে নাগরিক তালিকা

বাদপড়াদের বাংলাদেশে পাঠানোর ঘোষণা

প্রকাশ: ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৮      

সমকাল ডেস্ক

আসাম রাজ্যের নতুন নাগরিক তালিকা (এনআরসি) নিয়ে এই প্রথম স্পষ্ট ঘোষণা দিল ভারতে ক্ষমতাসীন দল বিজেপি। তারা বলেছে, রাজ্যের চূড়ান্ত নাগরিক তালিকা থেকে যাদের নাম বাদ পড়বে তাদের বাংলাদেশেই পাঠানো হবে। বিজেপির সাধারণ সম্পাদক রাম মাধব সোমবার সন্ধ্যায় দিল্লিতে এনআরসিবিষয়ক আলোচনা সভায় দলের এই নীতির কথা জানিয়ে দেন। খবর হিন্দুস্তান টাইমস ও বিবিসির।

রাম মাধব আরও বলেন, এখানে আমাদের তিনটি পরিকল্পনা রয়েছে। অর্থাৎ প্রথম ধাপে অবৈধ বিদেশিদের শনাক্ত করা হবে- যেটা এখন চলছে। তারপর ভোটার তালিকা থেকে তাদের নাম বাদ দেওয়া ও বিভিন্ন সরকারি সুযোগ-সুবিধা থেকে বঞ্চিত করার প্রক্রিয়া শুরু হবে। সবশেষে তাদের বাংলাদেশে পাঠানো হবে। এর আগে বিজেপির শীর্ষপর্যায়ের কোনো নেতাই এত স্পষ্ট করে এনআরসি থেকে বাদপড়াদের বাংলাদেশে পাঠিয়ে দেওয়ার কথা বলেননি।

একই আলোচনা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন আসামের মুখ্যমন্ত্রী সর্বানন্দ সোনোয়ালও। তিনি বলেন, অবৈধ বিদেশিদের খুঁজতে আসামের পর এবার পুরো ভারতেই এনআরসি প্রক্রিয়া চালু করা উচিত।

বিজেপি সাধারণ সম্পাদকের পরিকল্পনার কথা জানানোর সময় মুখ্যমন্ত্রী সোনোওয়ালসহ সভায় উপস্থিত দলের শীর্ষ নেতারা, শ্রোতা-দর্শক টেবিল চাপড়ে ও করতালিতে তাতে সমর্থন জানান। রাম মাধব আরও বলেন, অনেকে হয়তো প্রশ্ন তুলবেন, বাংলাদেশ বন্ধুপ্রতিম দেশ, সেখানে কীভাবে এত মানুষকে ফেরত পাঠানো হবে। এরপর নিজেই উত্তর দিয়ে বলেন, বন্ধু তো আপনাদের সবাই, তাই বলে কি তাদের যেসব লোক অবৈধভাবে এখানে আছে, তাদের ফেরত পাঠানো যাবে না? ফেরত পাঠানোর মধ্যে অন্যায় কিছু নেই। তার দাবি, ভারত সরকার বন্ধুপ্রতিম বাংলাদেশ সরকারের সঙ্গে বিষয়টি ঠিকই 'কূটনৈতিক দক্ষতায় ম্যানেজ করে নিতে পারবে'।

এনআরসি থেকে বাদপড়াদের বাংলাদেশে পাঠানো ভারত সরকারের নীতি কি-না, এ বিষয়ে দিল্লিতে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় স্পষ্টতই এ প্রশ্নের উত্তর এড়িয়ে যাচ্ছে। মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র রবীশ কুমার বলেন, খসড়ায় যারা ঠাঁই পায়নি, তারা ভারতীয় নাগরিক প্রমাণ করার আরও অনেক সুযোগ পাবে, সেটা বাংলাদেশকে জানানো হয়েছে। এ মুহূর্তে এর চেয়ে বেশি কিছু বলার নেই। যদিও বাংলাদেশ সরকার অনেক আগেই জানিয়ে দিয়েছে, তারা আসামের ওইসব লোকজনকে বাংলাদেশি নাগরিক বলে মনে করে না। ফলে তাদের ফিরিয়ে নেওয়ারও প্রশ্ন নেই।



এমসি কলেজ ছাত্র সংসদ ভবনই বেদখলে

এমসি কলেজ ছাত্র সংসদ ভবনই বেদখলে

প্রায় তিন দশক পর দেশের সর্বোচ্চ বিদ্যাপীঠ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে শুরু ...

ইটভাটায় আইন লঙ্ঘনের জরিমানা বাড়ছে

ইটভাটায় আইন লঙ্ঘনের জরিমানা বাড়ছে

পরিবেশ বিপর্যয় ঠেকাতে ইটভাটা নির্মাণ ও ইট প্রস্তুতের ক্ষেত্রে আইন ...

শাঁখারি কার্ত্তিকের 'বাড়ি' বাঁচানোই দায়

শাঁখারি কার্ত্তিকের 'বাড়ি' বাঁচানোই দায়

শাঁখারি কার্ত্তিক চন্দ্র সেন। বাড়ি ডেফলচড়া শাঁখারিপাড়া। পাবনার চাটমোহর উপজেলার ...

মন্ত্রিসভায় উঠছে যুদ্ধাপরাধীদের সম্পদ বাজেয়াপ্ত আইন

মন্ত্রিসভায় উঠছে যুদ্ধাপরাধীদের সম্পদ বাজেয়াপ্ত আইন

একাত্তরের মানবতাবিরোধী অপরাধীদের সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করতে নতুন আইন করছে সরকার। ...

নতুন নৌবাহিনী প্রধান আওরঙ্গজেব চৌধুরী

নতুন নৌবাহিনী প্রধান আওরঙ্গজেব চৌধুরী

নৌবাহিনীর প্রধান হিসেবে নিয়োগ পেলেন এ এম এম এম আওরঙ্গজেব ...

অন্যকে ফাঁসাতে গর্ভের সন্তানকে হত্যা!

অন্যকে ফাঁসাতে গর্ভের সন্তানকে হত্যা!

গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়ায় ১ মাসের শিশু সন্তানকে পানিতে ফেলে হত্যার অভিযোগে ...

মাদ্রাসা শিক্ষকের একী কাণ্ড!

মাদ্রাসা শিক্ষকের একী কাণ্ড!

সিলেবাস দেওয়ার কথা বলে বাসায় ডেকে নিয়ে অষ্টম শ্রেণি পড়ূয়া ...

ভুয়া ভোটে নির্বাচিতরা ভুয়া প্রতিনিধি: সেলিম

ভুয়া ভোটে নির্বাচিতরা ভুয়া প্রতিনিধি: সেলিম

বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির (সিপিবি) সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম একাদশ জাতীয় ...