নোয়াখালীর সুবর্ণচরে সেনাবাহিনীর সদস্যদের বহনকারী একটি গাড়ি খাদে পড়ে তিন সেনাসদস্য নিহত হয়েছেন। একই সময়ে আহত হয়েছেন আরও ৯ জন। গতকাল শুক্রবার বিকেলে চরজব্বার থানার সোনাপুর-চেয়ারম্যান ঘাট সড়কের তোতা মিয়ার বাজার এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

আহতদের উদ্ধারের পর হেলিকপ্টারে করে ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) পাঠানো হয়েছে।

চরজব্বার থানা পুলিশ জানায়, নিহতদের মধ্যে সিপাহি মামুন খোন্দকার (২৪), ফিরোজুল ইসলাম (২২) ও ফয়েজ উদ্দিন (২৩) রয়েছেন। আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তর (আইএসপিআর) দুর্ঘটনার কথা নিশ্চিত করলেও এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত বিস্তারিত জানা যায়নি। চরজব্বর থানার ওসি সাহেদ উদ্দিন ও সেনা গোয়েন্দা নোয়াখালী কার্যালয়ের সার্জেন্ট মো. হানিফ সমকালকে বলেন, শুক্রবার বিকেলে সেনাবাহিনীর সদস্যদের নিয়ে একটি গাড়িবহর নোয়াখালীর হাতিয়ার জোবায়ের বাজার ক্যান্টনমেন্ট এলাকায় যাচ্ছিল। এ সময় ১১ সেনাসদস্য বহনকারী একটি পিকআপ ভ্যান সুবর্ণচর উপজেলার সেনাপুর-চেয়ারম্যানঘাট সড়কের তোতা মিয়ার বাজার সংলগ্ন এলাকায় পৌঁছলে চালক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলেন। এতে গাড়িটি রাস্তার পাশে গাছের সঙ্গে ধাক্কা খেয়ে গভীর খালে পড়ে যায়। এতে গাড়িতে থাকা ১১ সেনাসদস্য ও চালকসহ ১২ জন আহত হন।

ওসি বলেন, স্থানীয়দের সহযোগিতায় পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা দুর্ঘটনায় পড়া সেনাসদস্যদের উদ্ধার করে সুবর্ণচর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। সেখানে সৈনিক মামুন, ফয়েজ ও ফিরোজুলকে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। আহত সেনাসদস্যদের উন্নত চিকিৎসার জন্য হেলিকপ্টারে করে ঢাকায় সিএমএইচে নেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি খাদে পড়া পিকআপটিও উদ্ধার করা হয়েছে।

সূবর্ণচর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্তব্যরত চিকিৎসক তৌফিক সমকালকে বলেন, সড়ক দুর্ঘটনায় আহত সেনাবাহিনীর ১২ সদস্যকে বিকেল সাড়ে ৩টার সময় হাসপাতালের জরুরি বিভাগে আনা হয়। তাদের মধ্যে মামুন ও ফয়েজ নামের দু'জনকে মৃত অবস্থায় আনা হয়েছে। গুরুতর অবস্থায় সেনাসদস্য ফিরোজকে সুবর্ণচর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের অ্যাম্বুলেন্সে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে নেওয়ার পথে মারা যান তিনি। বাকি আহতদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়। প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে তাদের সেনাবাহিনীর একটি হেলিকপ্টারে ঢাকার সিএমএইচে পাঠানো হয়েছে। তবে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ কিংবা চরজব্বার থানা পুলিশ নিহতদের নাম বলতে পারলেও আহতদের নাম-ঠিকানা বলতে পারেননি। ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়েন রয়েছে। এদিকে তিন সেনাসদস্যের নিহতের ঘটনায় স্থানীয় সেনাসদস্যদের মাঝে শোকের ছায়া নেমে আসে।

সংশ্নিষ্ট সূত্র জানায়, দুর্ঘটনায় হতাহতরা সিলেটের ২১ ব্যাটালিয়নে কর্মরত ছিলেন। সেখান থেকে শুক্রবার নোয়াখালীর স্বর্ণদ্বীপে প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে যাওয়ার সময় দুর্ঘটনায় পড়েন। এ বিষয়ে বিস্তারিত পরে জানানো হবে।









মন্তব্য করুন