এবার কাদের মির্জার নেতৃত্বে সাংবাদিকের ওপর হামলা

প্রকাশ: ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২১

নোয়াখালী প্রতিনিধি

কোম্পানীগঞ্জের চরফকিরা ইউনিয়নে সাংবাদিক বুরহান উদ্দিন মুজাক্কিরের দাফন সম্পন্ন হওয়ার কিছুক্ষণ পর আরেক সাংবাদিকের ওপর হামলার ঘটনা ঘটেছে। গত রোববার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে বসুরহাট রূপালী চত্বরের কাছে ওই সাংবাদিকের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের সামনে এ হামলা চালানো হয়।

হামলার শিকার গিয়াস উদ্দিন রনি অনলাইন নিউজ পোর্টাল বার্তা২৪ ও স্বদেশ প্রতিদিনের জেলা প্রতিনিধি। গতকাল সোমবার তিনি অভিযোগ করেন, রোববার সন্ধ্যায় তিনি তার ইলেকট্রনিক্স পণ্যের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের পাশে দাঁড়িয়েছিলেন। এমন সময় দোকানের সামনের সড়ক দিয়ে কাদের মির্জা যাওয়ার সময় তিনি তাকে সালাম দেন। এ সময় কাদের মির্জা তাকে গালমন্দ করে সামনের দিকে এগিয়ে আসেন। একপর্যায়ে এই নেতার সঙ্গে থাকা কয়েকজন অনুসারী তাকে কয়েকটি কিলঘুষি দেন। এতে সাংবাদিকের হাতে থাকা দুটি মোবাইল ফোন রাস্তায় পড়ে গেলে সেগুলো নিয়ে যায় কাদের মির্জার অনুসারীরা।

সাংবাদিক গিয়াস উদ্দিন রনি অভিযোগ আরও করেন, এ ঘটনার পর তিনি দোকান থেকে চলে যেতে বাধ্য হন। এ বিষয়ে আইনি পদক্ষেপ নেবেন কিনা তাও সিদ্ধান্ত নিতে পারছেন না বলে তিনি জানান।

এ ব্যাপারে কাদের মির্জার সঙ্গে কথা বলতে চাইলে তার ব্যক্তিগত সহকারী নাছির উদ্দিন বলেন, মেয়র প্রোগ্রামে আছেন। গিয়াস উদ্দিন রনির অভিযোগ অস্বীকার করে তিনি বলেন, রনির বাবা পৌরসভার ৯ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর। একটি পারিবারিক বিষয় নিয়ে কাদের মির্জা রনিকে বকা দিয়েছেন। মারধর কিংবা মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নেওয়ার কোনো ঘটনা ঘটেনি।

কোম্পানীগঞ্জ থানার ওসি মির জাহিদুল হক রনি বলেন, ঘটনার পরপরই সাংবাদিক রনি বিষয়টি তাকে মোবাইল ফোনে জানিয়েছেন। এ ঘটনায় তাকে লিখিত অভিযোগ দিতে বলা হলেও সোমবার সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত কোনো লিখিত অভিযোগ দেননি। ওসি বলেন, রনির বাবা বসুরহাটের নির্বাচিত কাউন্সিলর এবং মেয়রের সঙ্গে সুসম্পর্ক রয়েছে। তাই হয়তো তিনি লিখিত অভিযোগ দেননি।