সেনা অফিসার হয়ে ওঠা হলো না নিশানের

প্রকাশ: ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২১

চট্টগ্রাম ব্যুরো

দুই বোনের এক ভাই ছিলেন সেনা ক্যাডেট আসিফুল ইসলাম নিশান। সেনাবাহিনীর রেকর্ড শাখায় কর্মরত বাবা আনোয়ারুল ইসলামের স্বপ্ন ছিল ছেলে একজন বড় সেনা অফিসার হবে। বাবার স্বপ্ন এক ধাপ পূরণও করেছিলেন নিশান। সেনাবাহিনীর ক্যাডেট অফিসার হিসেবে দীর্ঘমেয়াদি কোর্সে যুক্ত ছিলেন। এ পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হলেই নিশান হয়ে যেতেন সেনাবাহিনীর সেকেন্ড লেফটেন্যান্ট পদধারী। গতকাল মঙ্গলবার আনোয়ারা উপজেলার শঙ্খ নদীতে সব স্বপ্নের জলাঞ্জলি হয়ে গেল।

শঙ্খ নদীতে গোসল করতে নেমে পানিতে তলিয়ে মারা যান সেনা ক্যাডেট নিশান। তার মৃত্যুতে মিরসরাই উপজেলার টেকেরহাট এলাকার বেলুমালের বাড়িতে চলছে মাতম। তিনি কাটাছড়ার শিক্ষক আবুল বশর মাস্টারের নাতি।

শঙ্খ নদী থেকে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরিরা কয়েক ঘণ্টা চেষ্টা করে সকাল ১১টা ৫০ মিনিটে নিশানের লাশ উদ্ধার করেন। বিকেল ৫টায় চট্টগ্রাম সেনানিবাসে তার প্রথম জানাজা হয়। পরে মিরসরাই উপজেলার টেকেরহাটের বেলুমালে পারিবারিক কবরস্থানে এশার নামাজের পর তার লাশ দাফন করা হয়।

নিশানের বাবা আনোয়ারুল ইসলাম বলেন, আমার ছেলে নেই- এটি মানতে পারছি না! কী থেকে কী হয়ে গেল বুঝতে পারছি না। আমার স্বপ্ন ছিল ছেলে বড় সেনা অফিসার হবে, তা আর হলো না।

নিশানের মামা মাসুদ খান বলেন, গত সোমবার রাতে আমাদের পরিবারকে খবর দেওয়া হয় নিশান গোসল করতে নেমে নিখোঁজ রয়েছেন। তারপর নিশানের মাসহ আমাদের পরিবারের সবাই উদ্বিগ্ন ছিলাম। সেনাবাহিনী থেকে জানানো হয়, মঙ্গলবার সকাল ১১টা ৫৫ মিনিটে পানি থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। এক সঙ্গীকে নিয়ে শঙ্খ নদীতে গোসল করতে গিয়ে সাঁতার কাটতে গিয়ে নদীর একটু মাঝে চলে গিয়েছিলেন। পরে তীরে আসার আগেই তিনি তলিয়ে যান। তার সঙ্গে যিনি ছিলেন, তিনি তাকে উদ্ধারের চেষ্টা করলেও নিশানের কাছে পৌঁছানোর আগেই তলিয়ে যান।