সাইবেরিয়ায় পাওয়া জীবাশ্মে ১০ থেকে ১২ লাখ বছর আগের প্রাণীর ডিএনএ পেয়েছেন গবেষকরা। সেই ডিএনএ দানবাকৃতি ম্যামথের। ফলে ম্যামথরা যে প্রচলিত ধারণার চেয়ে আরও আগেই পৃথিবীতে এসেছিল তার প্রমাণ পাওয়া গেল। সাড়া জাগানো এই আবিস্কারের গবেষণাপত্র প্রকাশিত হয়েছে আন্তর্জাতিক বিজ্ঞান জার্নাল নেচারে। এর আগে প্রাচীনতম যে প্রাণীর ডিএনএ পাওয়া গিয়েছিল, সেটি ছিল সাত লাখ বছর আগের। সেই ডিএনএ মিলেছিল ঠান্ডায় জমে বরফ হয়ে যাওয়া একটি ঘোড়ার জীবাশ্ম থেকে।

গবেষকরা জানিয়েছেন, এখন যেটা উত্তর আমেরিকা, এই দানবাকৃতি ম্যামথরা থাকত সেখানেই। তখন তুষার যুগ ছিল পৃথিবীতে। তুষার যুগের হাড় জমানো ঠান্ডা সহ্য করার ক্ষমতা ছিল এই ম্যামথদের।

উত্তর-পশ্চিম সাইবেরিয়ায় পাওয়া এ ম্যামথদের জীবাশ্ম থেকে ডিএনএ বের করা হয়েছিল গত শতাব্দীর সাতের দশকে। গবেষকরা জানিয়েছেন, যে তিনটি ম্যামথের জীবাশ্ম থেকে ডিএনএ বের করা হয়েছিল, তাদের দুটি (ক্রোস্তোভকা ও আদিচা) বিচরণ করত ১০ থেকে ১২ লাখ বছর আগে। আর তৃতীয়টি (চুকোচিয়া) বিচরণ করত পাঁচ থেকে আট লাখ বছর আগে। সূত্র :আনন্দবাজার।

মন্তব্য করুন