এশিয়া থেকে প্রথমবারের মতো সেরা নারী পরিচালক হিসেবে 'গোল্ডেন গ্লোব' পুরস্কার জিতে ইতিহাস সৃষ্টি করেছেন চীনের ক্লো ঝাও। 'টিয়ারস' ছবির জন্য তিনি এ পুরস্কার পেয়েছেন। গতকাল সোমবার যুক্তরাষ্ট্রের লস অ্যাঞ্জেলেস ও নিউইয়র্ক থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে পুরস্কারজয়ীদের নাম ঘোষণা করা হয়।

ক্লো ঝাও পুরস্কার জেতায় অনলাইনে অনেকেই তার প্রশংসা করে একে 'হ্যাপি টিয়ারস' (আনন্দাশ্রু) আখ্যা দিয়েছেন। একজন লিখেছেন, 'তরুণ এশীয় নারীদের জন্য তিনি বিশাল অনুপ্রেরণার নাম।' আরেকজন লিখেছেন, 'তার এই জয় সব নারীর।'

এ নিয়ে দু'জন নারী গোল্ডেন গ্লোব পুরস্কার জিতলেন। এর আগে ১৯৮৪ সালে বারব্রা স্ট্রিস্যান্ড এ পুরস্কার জিতেছিলেন। এদিকে, চীনের জনপ্রিয় সামাজিক মাধ্যম উইবোতেও ক্লো ঝাওয়ের মেধার প্রশংসা করেছেন ব্যবহারকারীরা।

৩৮ বছর বয়সী পরিচালক ক্লো ঝাও পরিচালিত তৃতীয় ছবি 'টিয়ারস'। চীনের বেইজিংয়ে জন্ম নেওয়া ক্লো ঝাও বর্তমানে যুক্তরাষ্ট্রে বাস করছেন।

মহামারির কারণে এবারের ৭৮তম পুরস্কারের আসরে ছিল ভিন্ন রকম আয়োজন। অনুষ্ঠানে এবার ছিল না অতিথির ভিড়। তা সত্ত্বেও আয়োজন জমকালো করে তোলার সব রকম চেষ্টা ছিল। গত ৩ ফেব্রুয়ারি এবারের আসরের মনোনয়ন ঘোষণা করা হয়েছিল। মনোনয়নের তালিকা দেখেও চমকে গিয়েছিলেন অনেকে। কেননা, এবারই একসঙ্গে মনোনয়ন পেয়েছিলেন তিন নারী নির্মাতা। তারা হলেন 'প্রমিজিং ইয়াং উইম্যান' ছবির পরিচালক এমারাল্ড ফেনেল, 'ওয়ান নাইট ইন মায়ামি'র রেজিনা কিং ও 'নোম্যান্সল্যান্ড' ছবির নির্মাতা ক্লোয়ি জাও। এই মনোনয়নের মধ্য দিয়ে এবারই প্রথম গোল্ডেন গ্লোব অ্যাওয়ার্ডের এই সংক্ষিপ্ত তালিকায় একাধিক নারী নির্মাতার জায়গা হয়েছিল।

গোল্ডেন গ্লোবের আগের ৭৭ বছরে মাত্র পাঁচজন নারী নির্মাতা সেরা পরিচালক শাখায় মনোনয়ন পান। সবশেষ ২০১৪ সালে 'সেলমা'র জন্য এ তালিকায় যুক্ত হয় অ্যাভা ডুভারনের নাম। এবারের আসরে মনোনীত তিন নারী নির্মাতার মধ্যে আলাদাভাবে নজর কেড়েছিলেন ক্লো ঝাও। কারণ, গোল্ডেন গ্লোবসের সেরা পরিচালক শাখায় তার মাধ্যমেই প্রথমবার এশিয়ান বংশোদ্ভূত কোনো নারী মনোনয়ন পেয়েছিলেন।

ব্রিটিশ নির্মাতা এমারাল্ড ফেনেল 'কিলিং ইভ' সিরিজের দ্বিতীয় মৌসুমের প্রধান চিত্রনাট্যকার হিসেবে প্রশংসা কুড়িয়েছেন। 'দ্য ক্রাউন' সিরিজে ক্যামিলা পার্কার বোলস চরিত্রে অভিনয় করেছেন তিনি। রেজিনা কিং অভিনেত্রী হিসেবেই বেশি পরিচিত। 'ইফ বিল স্ট্রিটকুড টক' [২০১৮] ছবির জন্য অস্কার ও গোল্ডেন গ্লোব জিতেছেন তিনি।

তাই মনোনয়ন প্রকাশের পর থেকে বিজয়ীদের নিয়ে শুরু হয়ে গিয়েছিল জল্পনা-কল্পনা। অবশেষে সব জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটেছে গতকাল। আনুষ্ঠানিক আয়োজনের মধ্য দিয়ে ২০২০ সালের হলিউডসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশের সেরা চলচ্চিত্র ও টিভি অনুষ্ঠান এবং সেরা তারকাদের দেওয়া হয়েছে পুরস্কার।

এবারে একনজরে দেখে নেওয়া যাক বিভিন্ন শাখায় কারা পেলেন ৭৮তম গোল্ডেন গ্লোব পুরস্কার :সেরা সিনেমা [ড্রামা] :'নোমাডল্যান্ড', সেরা সিনেমা [মিউজিক্যাল/কমেডি] :'বোরাট সাবসিকোয়েন্ট মুভিফিল্ম', সেরা অভিনেত্রী- মোশন পিকচার [ড্রামা] :আন্দ্রে ডে [দি ইউনাইটেড স্টেটস ভার্সেস বিলি হলিডে], সেরা অভিনেতা- মোশন পিকচার [ড্রামা] :চ্যাডউইক বোজম্যান [মা রেইনি'স ব্যাক বটম], সেরা অভিনেত্রী- মোশন পিকচার [মিউজিক্যাল/কমেডি] :রোজামুন্ড পাইক [আই কেয়ার অব লট], সেরা অভিনেতা- মোশন পিকচার [মিউজিক্যাল/কমেডি] :সাশা ব্যারন কোহেন [বোরাট সাবসিকোয়েন্ট মুভিফিল্ম], সেরা পরিচালক [মোশান পিকচার] :কোয়ে ঝাও [নোমাডল্যান্ড]। সেরা চিত্রনাট্য :দ্য ট্রায়াল অব দ্য শিকাগো, সেরা সিনেমা [অ্যানিমেটেড] :সৌল, সেরা বিদেশি ভাষার সিনেমা :মিনারি [যুক্তরাষ্ট্র], সেরা ড্রামা সিরিজ :দ্য ক্রাউন, সেরা মিউজিক্যাল/কমেডি সিরিজ :শিট'স ক্রিক, সেরা টেলিভিশন [মোশন পিকচার] :দ্য কুইন'স গ্যাম্বিট, সেরা টিভি অভিনেত্রী [ড্রামা সিরিজ] :এমা করিন [দ্য ক্রাউন], সেরা অভিনেতা [ড্রামা সিরিজ] :জশ ও'কনোর [দ্য ক্রাউন], সেরা অভিনেত্রী [মিউজিক্যাল অথবা কমেডি] :ক্যাথেরিন ও'হারা [শিট'স ক্রিক]। সেরা অভিনেতা [মিউজিক্যাল অথবা কমেডি] :জেসন সুডেইকিস [টেড ল্যাসো]।

এ ছাড়া পার্শ্ব চরিত্রের জন্য সেরা অভিনেত্রী হিসেবে জোডি ফস্টার এবং অভিনেতা হিসেবে ড্যানিয়েল কালুইয়াকে পুরস্কার দেওয়া হয়েছে।

মন্তব্য করুন