আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, হেফাজতের তাণ্ডবে বিএনপি যে প্রত্যক্ষ এবং পরোক্ষভাবে জড়িত, তা আজ সবাই জানে। হেফাজতে ইসলাম সম্প্রতি যে তাণ্ডবলীলা চালিয়েছে বিএনপি তার শুধু পৃষ্ঠপোষক নয়, বরং এসব সহিংস ঘটনায় জড়িতও ছিল।

গতকাল মঙ্গলবার রাজশাহী সড়ক জোন, বিআরটিসি ও বিআরটিএ'র কর্মকর্তাদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় ওবায়দুল কাদের এসব কথা বলেন। সংসদ ভবন এলাকার সরকারি বাসভবন থেকে সভায় ভার্চুয়ালি যুক্ত হন তিনি।

ওবায়দুল কাদের বলেন, কোনো দল বা আলেম-ওলামা দেখে কাউকে গ্রেপ্তার করা হয়নি। যারা এ তাণ্ডবলীলার সঙ্গে সরাসরি জড়িত, যারা বাড়িঘরে হামলা ও আগুন দিয়েছে, তাদের ভিডিও দেখে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

'সরকার গণবিচ্ছিন্ন' বিএনপি নেতাদের এমন বক্তব্যের জবাবে তিনি বলেন, গত তেরো বছর ধরে ধারাবাহিক ব্যর্থতার গ্লানিবোধ থেকে বিএনপি এসব কথা বলে। প্রকৃতপক্ষে সরকার নয়, বিএনপিই জনগণ থেকে প্রত্যাখ্যাত ও গণবিচ্ছিন্ন।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, বিএনপি এক যুগের বেশি সময় ধরে আন্দোলনের হাঁক-ডাক দিয়ে যাচ্ছে। তবে শুধু আন্দোলনই নয়, জাতীয় ও স্থানীয় নির্বাচন এবং উপনির্বাচনে তাদের নির্লজ্জ ভরাডুবিই প্রমাণ করে জনগণ থেকে কারা জনবিচ্ছিন্ন।

তিনি বলেন, করোনার এ সময়ে রাজনৈতিক বিরূপ মন্তব্য করা ঠিক নয়। কারোরই এখন পারস্পরিক দোষারোপ করা উচিত নয়।

কিন্তু নিত্যদিন বিএনপির মিথ্যাচার ও অন্ধ সমালোচনার জবাব দিতে হয়।

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের মানুষের কাছে বিআরটিএ'কে গ্রহণযোগ্য করার জন্য সংশ্নিষ্টদের নির্দেশ দিয়ে বলেন, এ প্রতিষ্ঠানে হয়রানি আগের তুলনায় কমলেও কিছু কিছু এলাকায় এখনও অভিযোগ রয়েছে সেগুলো বন্ধ করতে হবে। তিনি বর্ষার আগেই নির্মাণাধীন কাজ এগিয়ে নিতেও সংশ্নিষ্টদের নির্দেশ দেন।


মন্তব্য করুন