ভারত থেকে ফেরার পর খুলনায় প্রাইমারি ট্রেনিং ইনস্টিটিউট (পিটিআই) সেন্টারে কোয়ারেন্টাইনে থাকা এক তরুণী ধর্ষণের শিকার হয়েছেন। এ ঘটনায় মামলা দায়েরের পর আসামি পুলিশের এএসআই মোখলেছুর রহমানকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এরই মধ্যে তাকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। তিনি ওই সেন্টারে নিরাপত্তার দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন। গতকাল সোমবার সেখানে কোয়ারেন্টাইনে ছিলেন চার নারী। ধর্ষণের শিকার তরুণীর কোয়ারেন্টাইন শেষ হবে আজ মঙ্গলবার।

খুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশ (কেএমপি) সূত্রে জানা গেছে, নগরীর মশিয়ালি এলাকার বাসিন্দা এক তরুণী গত ৪ মে ভারত থেকে বেনাপোল সীমান্ত দিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করেন। এরপর তাকে খুলনা পিটিআইতে কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়। ১৩ মে চাঁদ রাতে এবং ১৫ মে রাতে এএসআই মোখলেছ দু'দফায় তাকে ধর্ষণ করেন। এরপর ১৭ মে ওই তরুণী বাদী হয়ে খুলনা থানায় মামলা করেন।

কেএমপি কমিশনার মাসুদুর রহমান ভূঁইয়া জানান, অভিযোগ পাওয়ার পর মোখলেছকে গ্রেপ্তার করে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। একই সঙ্গে তাকে সাময়িক বরখাস্ত এবং তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলা হয়েছে। মামলা দুটির তদন্তও শুরু হয়েছে। এ ঘটনায় কোনো প্রকার শৈথিল্য দেখানো হবে না।

বাংলাদেশ মানবাধিকার বাস্তবায়ন সংস্থার খুলনার সমন্বয়কারী অ্যাডভোকেট মোমিনুল ইসলাম বলেন, এ ঘটনায় কোয়ারেন্টাইনে থাকা নারীদের মধ্যে উৎকণ্ঠা তৈরি হতে পারে। সে কারণে কোয়ারেন্টাইন সেন্টারগুলোতে নারী পুলিশ কর্মকর্তাদের তত্ত্বাবধানে নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিশ্চিত করা প্রয়োজন।

মন্তব্য করুন