কুমিল্লা-৫ (বুড়িচং-ব্রাহ্মণপাড়া) সংসদীয় আসনের উপনির্বাচনে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হতে যাচ্ছেন আওয়ামী লীগের প্রার্থী বীর মুক্তিযোদ্ধা অ্যাডভোকেট আবুল হাশেম খান। গতকাল রোববার বিকেলে জাতীয় পার্টির প্রার্থী জসিম উদ্দিন মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করে নেন। এতে আর কোনো প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী না থাকায় এ আসনে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে না বলে রিটার্নিং অফিসারের কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে। এ খবরে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের মধ্যে স্বস্তি বিরাজ করছে।

কুমিল্লা-৫ আসনের উপনির্বাচনে মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিন গত ১৫ জুন আওয়ামী লীগ ও জাতীয় পার্টি থেকে দু'জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র দাখিল করেন। যাচাই-বাছাই শেষে দুই প্রার্থীর মনোনয়ন বৈধ ঘোষণা করেন রিটার্নিং অফিসার। আগামী ২৪ জুন মনোনয়ন প্রত্যাহারের শেষ দিন হলেও গতকাল রোববার বিকেলে জসিম উদ্দিন জেলা রিটার্নিং অফিসারের কার্যালয়ে এসে মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের আবেদন করেন।

এ বিষয়ে সন্ধ্যায় স্থানীয় সরকার বিভাগ কুমিল্লার উপপরিচালক শওকত ওসমান জানান, জাতীয় পার্টির প্রার্থী তার মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের আবেদন করেছেন। তবে তা বিধি অনুসারে আগামী ২৪ জুন আনুষ্ঠানিকভাবে জানানো হবে। এ বিষয়ে জসিম উদ্দিনের বক্তব্য জানতে তার মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলেও তা বন্ধ পাওয়া যায়।

গতকাল সন্ধ্যায় এমন খবর সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা তাদের দলীয় প্রার্থীকে শুভেচ্ছা জানাতে তার বাসায় ছুটে যান। অনেকে ফেসবুকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন।

হাশেম খান বলেন, বুড়িচং-ব্রাহ্মণপাড়ার উন্নয়ন এবং প্রয়াত নেতার অসম্পূর্ণ কাজ সম্পন্ন করতে সবাইকে নিয়ে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করব। জনগণের জন্য আমার দরজা সবসময় খোলা থাকবে।

১৪ এপ্রিল আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও সাবেক আইনমন্ত্রী অ্যাডভোকেট আবদুল মতিন খসরু এমপির মৃত্যুতে আসনটি শূন্য ঘোষণা করা হয়। আগামী ২৮ জুলাই ভোট গ্রহণ হওয়ার কথা রয়েছে।

বিষয় : কুমিল্লা-৫ উপনির্বাচন উপনির্বাচন

মন্তব্য করুন