আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ১২ বছর আগের ঋণগ্রস্ত বাংলাদেশ এখন ঋণ সহায়তার এক অভূতপূর্ব সাফল্যের দেশ। বিশ্ব আজ অবাক হয়ে তাকিয়ে থাকে বদলে যাওয়া বাংলাদেশের দিকে।

গতকাল রোববার রাজধানীর বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ে ঢাকা জেলা আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভায় তিনি এসব কথা বলেন। ওবায়দুল কাদের বলেন, সামনের নির্বাচনে শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে হলে দলের মধ্যে সুদৃঢ় ঐক্য ফিরিয়ে আনতে হবে। কর্মীরা কোণঠাসা হয়ে গেলে আওয়ামী লীগ কোণঠাসা হয়ে যাবে। দলের নেতাদের উদ্দেশে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, নিজেদের অবস্থান ভারী করার জন্য পকেট কমিটি করা যাবে না। বিতর্কিত কাউকে দলে ঠাঁই দেওয়া যাবে না। তিনি আরও বলেন, এদেশে লুটপাটতন্ত্র চালু করেছিল বিএনপি। তারা বহুদলীয় গণতন্ত্রের নামে বহুদলীয় তামাশায় বাংলাদেশকে পরিণত করেছে। বিএনপির শাসনামলে দুর্নীতির কারণে তাদের কোনো নেতাকে শাস্তির আওতায় আনা হয়নি। অন্যদিকে শেখ হাসিনার সরকার দুর্নীতিবাজদের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নীতিতে চলেন। তিনি বলেন, বিএনপি মানুষের ভাগ্য উন্নয়ন চায় না। তারা নিজেদের ভাগ্য উন্নয়ন করতে চায়।

বিএনপি এ দেশের জন্য কী করেছে, যার জন্য জনগণ তাদের আন্দোলনে সাড়া দেবে? 'আওয়ামী লীগ জিয়াউর রহমানকে খলনায়ক বানাতে চায়'- বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের এমন বক্তব্যের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, প্রকৃতপক্ষে আওয়ামী লীগ নয়, জিয়া নিজ কর্মের কারণেই ইতিহাসের কাঠগড়ায় খলনায়ক হিসেবে চিহ্নিত। ইতিহাস বিকৃতির জন্য জনগণ জিয়াউর রহমানকে কোনোদিন ক্ষমা করবে না। জিয়া ইতিহাসের বিচারে অভিযুক্ত। ইতিহাসের ফুটনোটকে বিএনপি মহানায়ক বানানোর অপচেষ্টা করে যাচ্ছে। ওবায়দুল কাদের বলেন, নানা প্রতিকূলতা পেরিয়ে শেখ হাসিনার বাংলাদেশ আজ এক প্রত্যয়ী এবং সম্ভাবনাময় দীপ্যমান বাংলাদেশ। অর্থনীতির প্রতিটি সূচকে এগিয়ে যাওয়া বাংলাদেশ আজ মাথা তুলে দাঁড়িয়েছে। প্রবাসী আয় প্রাপ্তিতে বাংলাদেশ একধাপ এগিয়ে এখন সপ্তম স্থানে, বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ প্রায় ৪৫ দশমিক চারছয় বিলিয়ন মার্কিন ডলার। চলমান মেগা প্রকল্পগুলোর কাজ শেষ হলে দেশের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির ধারা আরও বাড়বে, বাড়বে সমৃদ্ধি। ঢাকা জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বেনজির আহমদের সভাপতিত্বে বর্ধিত সভায় আরও বক্তব্য রাখেন- আওয়ামী লীগের সভাপতিম লীর সদস্য অ্যাডভোকেট আবদুল মান্নান খান, সাংগঠনিক সম্পাদক মির্জা আজম, স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি নির্মল রঞ্জন গুহ, ঢাকা জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুর রহমান প্রমুখ।

বিষয় : ওবায়দুল কাদের

মন্তব্য করুন