দীর্ঘদিন ধরে নানা রোগে ভুগছেন চট্টগ্রামের সর্বজনশ্রদ্ধেয় প্রবীণ সাংবাদিক বীর মুক্তিযোদ্ধা নাসিরুদ্দিন চৌধুরী। করোনা থেকে মুক্ত হয়েছেন সবেমাত্র। কিন্তু চট্টগ্রামের সিআরবিতে হাসপাতাল প্রকল্প বাস্তবায়নে তোড়জোড় শুরু হলে ঘরে বসে থাকতে পারেননি তিনি। গতকাল শনিবার বৃষ্টি উপেক্ষা করে সিআরবিতে অবস্থান ধর্মঘটে অংশ নেন। এ সময় তার সঙ্গে ছিল অক্সিজেন সিলিন্ডার।

দৈনিক পূর্বকোণের সাবেক বার্তা সম্পাদক নাসিরুদ্দিন এ সময় হ্যান্ডমাইকে বলেন, প্রাণভরে বিশুদ্ধ অক্সিজেন নিতে না পারার কষ্ট এখন মর্মে মর্মে উপলব্ধি করছি। রোগে ভুগে আমি এখন মৃত্যুর দ্বারপ্রান্তে। সিআরবিতে হাসপাতাল হলে আমার জীবনের মতো সিআরবিও মৃত্যুর দ্বারপ্রান্তে উপনীত হবে। তাই রোগাক্রান্ত শরীর নিয়ে আমি আজ প্রতিবাদে শামিল হতে বাধ্য হয়েছি। তিনি আরও বলেন, ভয়াবহ দূষণের শিকার চট্টগ্রাম। সিআরবি পাহাড়ের শত শত বছরের শিরীষ গাছগুলো একেকটি অক্সিজেন তৈরির কারখানা। এখানে হাসপাতাল হলে সেই অক্সিজেন কারখানা ধ্বংস হবে। তাই যে কোনো মূল্যে সিআরবিকে রক্ষা করতে হবে।

সিআরবিতে হাসপাতাল নির্মাণ নিয়ে গত ৯ জুলাই সমকালে "চট্টগ্রামের 'ফুসফুসে' গাছ কেটে হাসপাতাল'' শিরোনামে প্রতিবেদন প্রকাশিত হওয়ার পর থেকে সিআরবি রক্ষায় সামাজিক আন্দোলন গড়ে ওঠে। চট্টগ্রামসহ সারাদেশের মানুষ এ আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছে।

মন্তব্য করুন