গণস্বাস্থ্যের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেছেন, বর্তমান সরকার হিন্দু-মুসলমান সবারই জানমালের নিরাপত্তা দিতে ব্যর্থ হয়েছে। এ অবস্থায় আমাদের সবাইকে মিলে হিন্দু ভাইবোনদের রক্ষা করতে হবে।

গতকাল রোববার চাঁদপুর জেলার হাজীগঞ্জে মন্দিরে হামলা ও পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষের ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন তিনি।

ডা. জাফরুল্লাহ বলেন, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামালকে তার গোয়েন্দা বাহিনী বোকা বানিয়েছে। তাকে বিভ্রান্ত করা হয়েছে। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছিলেন, সব মন্দিরে নিরাপত্তা দিয়েছেন। কিন্তু সেটা বাস্তবে করা হয়নি। এই দায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর। এ জন্য তার পদত্যাগ দাবি করছি।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর উদ্দেশে তিনি বলেন, আপনি ঘটনাস্থলে আসুন। যারা মারা গেছেন, তাদের বাড়িতে যান। মসজিদের ইমামদের হুকুম করুন যে, প্রত্যেক নামাজের সময় বলবেন হিন্দু-মুসলমান ভাই ভাই।

তিনি বলেন, আক্রান্ত প্রতিটি মন্দিরের জন্য দ্রুত ক্ষতিপূরণ দিতে হবে। পুলিশ পাহারা দিয়ে মন্দির-মসজিদ রক্ষা করা যাবে না। এ ক্ষেত্রে সরকারের ভুল আছে। সরকার যে পাঁচ হাজার কোটি টাকা মাদ্রাসাকে দিয়েছে সেখান থেকেই এর বীজ উৎপত্তি হচ্ছে।

ডা. জাফরুল্লাহ বলেন, আমাদের সবাইকে ভারতীয় আধিপত্যবাদের প্রতিবাদ করতে হবে। তবে এ কারণে যেন ভারতের মুসলমানরা ক্ষতিগ্রস্ত না হয়। এজন্য সরকারকে সাহসী হতে হবে। তিনি বলেন, জাতীয় সরকার করে, নিরপেক্ষ ব্যক্তিদের এনে, গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করে, সুষ্ঠু নির্বাচন করে আমরা সবাই একত্রে থাকতে চাই।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন ভাসানী অনুসারী পরিষদের মহাসচিব শেখ রফিকুল ইসলাম বাবলু, প্রেসিডিয়াম সদস্য মুক্তিযোদ্ধা নঈম জাহাঙ্গীর, গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রেস উপদেষ্টা জাহাঙ্গীর আলম মিন্টু, '৬৯-এ শহীদ আসাদের ছোট ভাই ডা. নুরুজ্জামান, হাবিবুর রহমান রিজু, ব্যারিস্টার সাদিয়া আরমান, রাষ্ট্র সংস্কার আন্দোলনের প্রচার ও মিডিয়া সমন্বয়ক হাসিবুদ্দিন সোহেল, রাজনৈতিক সমন্বয়ক ফরিদুল হক, সাংগঠনিক সমন্বয়ক ইমরান ইমন, অর্থ সমন্বয়ক দিদারুল ভূঁইয়া, সদস্য সারোয়ার তুষার, ছাত্র ফেডারেশনের সভাপতি গোলাম মোস্তফা, ভাসানী অনুসারী পরিষদের ছাত্রনেতা ইসমাইল হোসেন সম্রাট প্রমুখ।

'মন্দিরে হামলায় ভারতীয় গোয়েন্দা বাহিনী' :নোয়াখালী প্রতিনিধি জানান, বাংলাদেশের মন্দিরে হামলা ও ভাঙচুরের ঘটনায় ভারতীয় গোয়েন্দা বাহিনী জড়িত বলে মন্তব্য করেছেন জাফরুল্লাহ চৌধুরী। হামলায় ক্ষতিগ্রস্ত নোয়াখালীর চৌমুহনী বাজারের দোকানপাট ও একাধিক মন্দির পরিদর্শন শেষে গতকাল দুপুরে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন তিনি।

তিনি বলেন, সরকারের ব্যর্থতা ও ভুলের কারণে দেশব্যাপী এসব হামলার ঘটনা ঘটেছে। তাই সরকারের উচিত পদত্যাগ করা। ডা. জাফরুল্লাহ বলেন, আমরা মসজিদ-মন্দির পুলিশ পাহারা দিয়ে রাখব না, অন্তর দিয়ে পাহারা দেব।

মন্তব্য করুন