আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, যে কোনো ইস্যুকে রাজনৈতিক রূপ দিয়ে বিতর্কিত করাই বিএনপির কাজ। অপপ্রচার করাই বিএনপির শেষ আশ্রয়স্থল।

পূজামণ্ডপে হামলার পর থেকে বিএনপি মিথ্যাচার এবং অপপ্রচারের ফানুস উড়িয়েই যাচ্ছে। গতকাল মঙ্গলবার জাতীয় সংসদ ভবন এলাকার সরকারি বাসভবনে সমসাময়িক বিষয় নিয়ে নিয়মিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেছেন।

'কুমিল্লাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে পূজামণ্ডপে হামলা সরকারের নীলনকশা, সরকার হামলাকারীদের বিচারের উদ্যোগও নেয়নি'- বিএনপি নেতাদের এমন অভিযোগের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, তাদের মিথ্যাচার গোয়েবলসকেও হার মানায়। দোষারোপের রাজনীতি বিএনপির আদর্শ, তাই সরকারের বিরুদ্ধে কিছু না কিছু বলতেই হবে। এ ধরনের অন্তঃসারশূন্য অভিযোগ তারই ধারাবাহিকতা। তিনি বলেন, বিএনপির এসব অভিযোগ কল্পনাপ্রসূত। এর সঙ্গে বাস্তবতার কোনো সম্পর্ক নেই। কোনো সরকার কি চায় দেশের পরিস্থিতি অস্থিতিশীল করতে? আর তা করে সরকারের কী লাভ?

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, বিএনপি নেতারা হিন্দু সম্প্রদায়ের জন্য মায়াকান্না করলেও প্রকৃতপক্ষে পূজামণ্ডপে হামলার বিচার তারা চাননি। ভিডিও ফুটেজ অনুযায়ী সুনির্দিষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতে মামলা হলেও তারা বলছেন, বিরোধীদের হেনস্তা করার জন্য মামলা করা হয়েছে। এটা বিএনপির ডাবল স্ট্যান্ডার্ড। ঘটনার পর বিএনপির পক্ষ থেকে কেউ হিন্দু সম্প্রদায়ের পাশে দাঁড়ায়নি। অথচ এখন প্রায় দুই সপ্তাহ পর বিএনপি দলীয় টিম বিভিন্ন মন্দির পরিদর্শন করছে। ঘটনার রেশ কেটে যাওয়ার পর এই লোক দেখানো পরিদর্শন দলীয়ভাবে বিএনপির দায়িত্বহীনতাকেই স্পষ্ট করছে।

'সরকার পুরোহিতদের বিএনপি নেতাদের সঙ্গে কথা বলতে বাধা দিয়েছে'- বিএনপি নেতাদের এমন অভিযোগের জবাবে সেতুমন্ত্রী বলেন, এমন সৃজনশীল মিথ্যাচার বিএনপির মুখেই মানায়।



মন্তব্য করুন