যশোরে মুচলেকা দিয়ে রক্ষা এনজিও কর্মকর্তার

প্রকাশ: ১০ জুন ২০১৪

যশোর অফিস

যশোরে সিডাব নামে একটি এনজিও ঋণ কর্মসূচিতে জনবল নিয়োগের নামে জামানত বাবদ কয়েক লাখ টাকা আদায় করে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। প্রতারিত কর্মীরা সোমবার প্রতিষ্ঠানের নির্বাহী পরিচালক আলাউদ্দিনকে ধরে পুলিশে দিয়েছে। পরে টাকার বিপরীতে চেক ও সাত দিনের মধ্যে টাকা ফেরতের মুচলেকা দিয়ে তিনি রক্ষা পেয়েছেন। সোসিও ইকোনমিক ডেভেলপমেন্ট এজেন্সি অব বাংলাদেশ (সিডাব) নামে ঢাকার মহাখালীর একটি প্রতিষ্ঠান যশোরাঞ্চলে ঋণ কর্মসূচি বাস্তবায়ন করতে যশোর শহরের চারখাম্বা মোড়ে মেহেরুন ভিলায় একটি অফিস নেয়। পরে বিভিন্ন পদে জনবল নিয়োগ করার জন্য স্থানীয় দুটি পত্রিকায় নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি দেয়। এতে অসংখ্য বেকার আবেদন করে। এর বিপরীতে মৌখিক পরীক্ষা শেষে নিয়োগ দেওয়ার জন্য জামানত বাবদ কয়েক লাখ টাকা নেওয়া হয়।
চৌগাছার আবদুল্লাহ আল মারুফ নামে এক চাকরিপ্রত্যাশী জানান, কর্মসূচি সমন্বয়কারী পদে নিয়োগ পেতে তিনি গত ২৪ মে প্রতিষ্ঠানের নির্বাহী পরিচালক আলাউদ্দিনের কাছে ৩০ হাজার টাকা জামানত জমা দেন। একই পদে নিয়োগ দেওয়ার কথা বলে যশোর শহরের ধর্মতলার মনিরুল ইসলামের কাছ থেকে ১৫ হাজার, চাঁচড়ার কামাল আহম্মেদকে হিসাবরক্ষক পদে নিয়োগ দিতে ২০ হাজার, স্বপন নামে একজনকে ম্যানেজার পদে নিয়োগ দিতে ২৫ হাজার এবং চৌগাছা উপজেলার জাহাঙ্গীরপুর গ্রামের জিল্লুর রহমানের কাছ থেকে ২৪ হাজার টাকা গ্রহণ করা হয়েছে। কিন্তু চাকরিপ্রত্যাশীদের নিয়োগপত্র ও কাজে যোগদান না করিয়ে প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা গা-ঢাকা দেন।