সাপ নিয়ে স্বপ্নবিলাস

প্রকাশ: ১০ জুন ২০১৪

সৌমিত্র শীল চন্দন, রাজবাড়ী

রাজবাড়ী জেলার কালুখালী উপজেলার মৃগী ইউনিয়নের কাশদহ গ্রামে রবিউল ইসলাম রঞ্জু নামের এক তরুণ গড়ে তুলেছেন স্বপ্নের সাপের খামার। খামার থেকে সাপের বিষ অবমুক্ত করে তা বিদেশে রফতানি করার স্বপ্ন তার। খামার দেখে রাজবাড়ী-২ আসনের সংসদ সদস্য জিল্লুল হাকিম, রাজবাড়ী সরকারি কলেজের প্রাণিবিদ্যা বিভাগের প্রধান ও সহযোগী অধ্যাপক মোহাম্মদ নুরুজ্জামান ও স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান বদর উদ্দিন প্রশংসা
সনদ দিয়েছেন।
খামারের উদ্যোক্তা রবিউল ইসলাম রঞ্জু জানান, ডিসকভারি ও ন্যাশনাল জিওগ্রাফিক চ্যানেলে সাপের তথ্যচিত্র দেখে সাপের খামার করার স্বপ্ন দেখেন। ইন্টারনেটে এ-সংক্রান্ত বিভিন্ন তথ্য-উপাত্ত জোগাড় করতে শুরু করেন। রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রাণিবিদ্যা বিভাগের এক ছাত্রের গড়া সাপের খামারে গিয়ে সাপ লালন-পালনের বিষয়ে জ্ঞান অর্জন করেন। ২০১৩ সালের মাঝামাঝি স্থানীয় এক বড় ভাইয়ের সহায়তায় তার নিজের ৮৩ শতাংশ জমির ওপর গড়ে তোলেন সাপের খামার। তখন ঢাকার সাভারে সাপেরহাট থেকে ২০ হাজার টাকা দিয়ে কিনে আনেন ৩৫টি সাপ। কিন্তু বিধি বাম! সাপগুলো ক'দিন পরেই মারা যায়। খোঁজ নিয়ে জানতে পারেন, সাপুড়েরা সাপের বিষদাঁত ভেঙে ফেলে এবং বিষের থলে ছিদ্র করে দেয়, যে কারণে সাপ খাবার খেতে পারে না। তাই বেশি দিন বাঁচতেও পারে না। এর পর হাট-মাঠ-ঘাট থেকে তিনি সাপ ধরা
শুরু করলেন।