রাজবাড়ীর গোয়ালন্দে ছোটভাকলা ইউপি চেয়ারম্যানের হস্তক্ষেপে নবম শ্রেণির এক স্কুলছাত্রীর বাল্যবিয়ে বন্ধ হয়েছে। শুক্রবার রাতে এ বিয়ে সম্পন্ন করার প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছিল। ছোটভাকলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আমজাদ হোসেন জানান, চর আন্ধারমানিক গ্রামের ইছাক সরদারের মেয়ে স্থানীয় বরাট ভাকলা স্কুল অ্যান্ড কলেজের নবম শ্রেণির ছাত্রী সাথী আক্তারের শুক্রবার রাতে রাজবাড়ী সদরের এক ছেলের সঙ্গে বিয়ের আয়োজন করা হয়েছিল। গোপন সংবাদ পেয়ে ইউএনও আবু নাসার উদ্দিন তাকে এ বিষয়ে ব্যবস্থা নিতে বলেন। পরে তিনি শুক্রবার বিয়েবাড়িতে গিয়ে বাল্যবিয়ের কুফল ও আইনগত দণ্ডের কথা জানালে অভিভাবকরা বিয়ে বন্ধে সম্মত হন। এ সময় তারা বর পক্ষকে তাদের সিদ্ধান্তের কথা জানিয়ে বর নিয়ে আসতে নিষেধ করে দেন।

মন্তব্য করুন