ফরিদপুরের মধুখালী পৌর এলাকার বসতঘর থেকে ১৩টি গোখরা সাপের বাচ্চা উদ্ধারের পর এবার গাজনা ইউনিয়নের বড়াইল গ্রামে বিশাল আকৃতির একটি অজগর সাপ আটক করেছে এলাকাবাসী। শুক্রবার গভীর রাতে প্রায় ১৬ ফুট লম্বা ও ৩০ কেজি ওজনের অজগরটি আটক করে এলাকাবাসী। গত এক সপ্তাহে ১৩টি গোখরা সাপের বাচ্চা উদ্ধার, বিশাল আকৃতির অজগর আটক ও সাপের কামড়ে মফিজুর নামের এক যুবকের মৃত্যু- এ তিনটি ঘটনায় এলাকার মানুষের মধ্যে আতঙ্ক বিরাজ করছে।

জানা যায়, উপজেলার গাজনা ইউনিয়নের বড়াইল গ্রামের কৃষক আকরাম হোসেন শুক্রবার রাতে তার পুরাতন বাড়ি থেকে বিশ্বকাপ ফুটবল খেলা দেখে নতুন বাড়িতে যাওয়ার সময় রাস্তার ওপর অজগরটি দেখতে পান। পরে লোকজন ডেকে অজগরটি আটক করে নিজ বাড়িতে এনে একটি কাঠের খাঁচার মধ্যে ঢুকিয়ে রাখেন।

বিশাল আকৃতির এ অজগরটি কোথা থেকে এসেছে, তা কেউ বলতে পারছে না। সাপটি দেখতে আসা এলাকার লোকজন জানান, কিছুদিন ধরে এলাকা থেকে হাঁস-মুরগি নিখোঁজ হচ্ছিল। এতেই ধারণা করা হচ্ছিল, সাপটি অনেক দিন আগে থেকেই এলাকায় অবস্থান করছিল এবং তাদের হাঁস-মুরগি খেয়ে ফেলছিল।

মধুখালীর ইউএনও মো. মোস্তফা মনোয়ার বলেন, এসব এলাকায় এ ধরনের সাপ থাকার কথা নয়। সাপটি কীভাবে এ এলাকায় এলো, বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হবে। তিনি বলেন, সাপটি সংরক্ষণের জন্য বন বিভাগকে বলা হয়েছে।

মন্তব্য করুন