শেরপুরে জমি নিয়ে বিরোধে পাল্টাপাল্টি হামলা মহিলা দল নেত্রী ও যুবলীগ নেতাসহ আহত ৪

প্রকাশ: ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৮      

শেরপুর প্রতিনিধি

শেরপুরে জমি নিয়ে বিরোধে পাল্টাপাল্টি হামলায় জেলা মহিলা দলের সাবেক সভাপতি নুরজাহান বেগম ও আবদুল খালেক নামে এক যুবলীগ নেতাসহ ৪ জন আহত হয়েছেন। তাদের মধ্যে নুরজাহানকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। শহরের মীরগঞ্জ ও বটতলা এলাকায় পৃথক হামলার ঘটনায় মঙ্গলবার শেরপুর সদর থানায় দু'পক্ষই অভিযোগ করেছে।

মীরগঞ্জ এলাকার একখণ্ড জমি নিয়ে বিএনপি নেত্রী নূরজাহান বেগমের সঙ্গে প্রতিবেশী ফজু মিয়ার বিরোধ চলছে। রোববার সন্ধ্যায় মসজিদে যাওয়ার পথে ফজু মিয়ার সঙ্গে নূরজাহানের মেয়ে রূপনার কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে ফজু মিয়াকে লাঞ্ছিত করে রূপনা ও তার ভাইবোনেরা। পরে ফজু মিয়ার ছেলে যুবলীগ নেতা আবদুল খালেক সেখানে পৌঁছে বাবাকে লাঞ্ছিত করার প্রতিবাদ করলে তার ওপরও হামলা চালানো হয়। এ সময় তার মুখে ও বুকে ক্ষুর দিয়ে আঘাত করলে তিনি গুরুতর আহত হন। খালেককে হাসপাতালে পাঠানো হলে উভয়পক্ষ সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এ সময় নূরজাহানের মেয়ে সোহাগী ও রোজী আহত হন। পরে ক্ষুব্ধ লোকজন নূরজাহানের বাড়িসহ কয়েকটি বাড়িতে ভাংচুর চালায়।

এদিকে সোমবার রাতে জেলা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন বোনকে দেখতে যাচ্ছিলেন নূরজাহান। পথে একদল দুর্বৃত্ত তার ওপর হামলা চালিয়ে তাকে পিটিয়ে পালিয়ে যায়। পরে পথচারীরা নূরজাহানকে হাসপাতালে নিয়ে যান। শেষে তাকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।