নবীনগরে সিনামাছি গ্রামে চাঁদাবাজের দৌরাত্ম্য

প্রকাশ: ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৮      

নবীনগর (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) প্রতিনিধি

নবীনগর উপজেলার বিটিঘর ইউনিয়নের সিনামাছি গ্রাম দাঙ্গাবাজ, সন্ত্রাসী-চাঁদাবাজদের দখলে। এলাকার সাধারণ মানুষ তাদের হাতে জিম্মি। অন্যায়ের প্রতিবাদ করলেই চালানো হয় নির্যাতন। কোনো লোক তাদের বিরুদ্ধে কথা বলার চেষ্টা করলে তার কাছে চাঁদা দাবি করা হয়। চাঁদা না পেলে সন্ত্রাসী বাহিনী দিয়ে হামলা, ভাংচুর, লুটপাট করে।

দীর্ঘদিন ধরে গ্রামে আধিপত্য বিস্তার করে এসব অপকর্ম চালিয়ে যাচ্ছে গ্রামের মানিক মিয়া সর্দার। এসব অন্যায়ের প্রতিবাদ করতে গিয়ে গ্রামের এক সাবেক সেনাসদস্যের পরিবার নির্যাতনের শিকার হয়। এই বাহিনীর নির্যাতনের শিকার সাবেক সেনাসদস্য মোহাম্মদ হোসেন বাচ্চু মঙ্গলবার সাংবাদিকদের কাছে লিখিত বক্তব্যে সন্ত্রাসীদের অপকর্মের কাহিনী তুলে ধরেন

গত ২৫ আগস্ট ওই সেনাসদস্য তার বাড়ির বাউন্ডারি ওয়াল নির্মাণের সময় মনিক মিয়া তার বাহিনী নিয়ে এসে ৫ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে। চাঁদা দিতে অস্বীকৃতি জানালে ত্রাস সৃষ্টি করে ৩০ হাজার টাকা ও মোবাইল সেট ছিনিয়ে নিয়ে চার দিনের আলটিমেটাম দেয়। এরই মধ্যে ৫ লাখ টাকা না দিলে বাড়িঘর ভাংচুর, প্রাণনাশসহ গ্রাম থেকে বিতাড়িত করার হুমকি দিয়ে যায়। চাঁদার টাকা না পাওয়ায় ওই সেনাসদস্যের পরিবারটিকে অবরুদ্ধ করে ২৯ আগস্ট বাড়িতে হামলা করে ভাংচুর ও লুটপাট চালায়। প্রতিহতের চেষ্টা করলে উভয়পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ বাধে।