শরীয়তপুরে তানু হত্যা মামলায় ৩ জনের ফাঁসি

প্রকাশ: ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮      

শরীয়তপুর প্রতিনিধি

শরীয়তপুরে তানু হত্যা মামলায় তিনজনের ফাঁসির আদেশ দিয়েছেন আদালত। বুধবার জেলা নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আদালতের বিচারক আব্দুস ছালাম খান এ রায় দেন।

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামিরা হলো- সদর উপজেলার মধ্য চরোসুন্ধি গ্রামের আব্দুল কাদের তালুকদারের ছেলে রেজাউল করিম সুজন তালুকদার, মজিবুর রহমান পেদার ছেলে সাইফুল ইসলাম পেদা ও আব্দুল মান্নান মাদবরের ছেলে দুলাল মাদবর।

২০১৪ সালের ১৭ আগস্ট বিকেল ৪টার দিকে পৌরসভার দক্ষিণ বালুচড়া গ্রামের ইচাহাক মোল্লার স্ত্রী সামসুন নাহার তানু প্রাইভেট পড়তে গিয়ে আর বাড়ি ফেরেননি। এ ঘটনায় পালং মডেল থানায় সাধারণ ডায়েরি করা হয়। পরে প্রযুক্তি ব্যবহার করে রেজাউল করিম সুজন তালুকদারকে আটক করে পুলিশ।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সুজন স্বীকার করে, তানুকে সাইফুল ইসলাম ও দুলাল ফুসলিয়ে নিয়ে যায়। পরে তাকে বিভিন্ন স্থানে নিয়ে ধর্ষণ করে।

এরপর তিনজন মিলে ১৮ আগস্ট সদর উপজেলার ধানুকা গ্রামের নাসির উদ্দিন কালু সরদারের বাড়ির পেছনের বাগানে নিয়ে তানুকে হত্যা করে লাশ ইট বেঁধে পাশের ডোবায় ফেলে দেয়। ২২ আগস্ট পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে পাঠায়।

তানুর ভাশুর আবুল কাশেম মোল্লা থানায় হত্যা মামলা দায়ের করলে পুলিশ দীর্ঘ তদন্ত শেষে একই বছরের ১২ ডিসেম্বর তিনজনের বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশিট দাখিল করে।

বিচারক ১৭ জনের সাক্ষ্য গ্রহণ শেষে আসামিদের বিরুদ্ধে অপরাধ সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণ হওয়ায় গতকাল এ রায় দেন। তবে রেজাউল করিম সুজন জামিন নিয়ে পলাতক রয়েছে।

রাষ্ট্রপক্ষে পিপি মির্জা হজরত আলী ও আসামি পক্ষে শাহ্‌ আলম মামলাটি পরিচালনা করেন।