পটিয়ায় পেপার মিলে শ্রমিক অসন্তোষ

প্রকাশ: ০৯ নভেম্বর ২০১৮

পটিয়া (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি

বিনা নোটিশে শ্রমিক ছাঁটাই, বেতন-ভাতা বন্ধসহ বিভিন্ন কারণে চট্টগ্রামের পটিয়ার মোস্তফা সিটি গ্রুপ অব ইন্ডাস্ট্রিজের পেপার মিলে শ্রমিক অসন্তোষ চলছে। কয়েকদিন ধরে উৎপাদন বন্ধ থাকায় কোম্পানিরও লোকসান চলছে। বৃহস্পতিবার সকালে পেপার ও লবণ মিলের শ্রমিকরা রাস্তায় নেমে বিক্ষোভ করেছেন। পরে শিল্প পুলিশ, থানা পুলিশ ও কোম্পানির প্রতিনিধির মাধ্যমে এক বৈঠক অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা থাকলেও তা হয়নি।

শ্রমিক ও কোম্পানি সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার হাবিলাসদ্বীপ ইউনিয়নের উত্তর সীমান্তে রয়েছে মোস্তফা সিটি গ্রুপ অব ইন্ডাস্ট্রিজের পেপার মিল, লবণ মিলসহ কয়েকটি শিল্প প্রতিষ্ঠান। ওই কোম্পানি প্রায় সময় শ্রমিকদের বেতন-ভাতা বন্ধ করে রাখাসহ যখন-তখন শ্রমিক ছাঁটাই করে থাকে বলে অভিযোগ। পেপার ও লবণ মিলে তিন শিফটে শ্রমিকরা কাজ করে থাকে। কোম্পানি লোকসানের অজুহাতে শ্রমিকদের কাজ দুই শিফট চালু করার চেষ্টা ও অন্যত্র বদলি করার হুমকি দেয়। শ্রমিকরা জানিয়েছেন, কোনো কারণ ছাড়াই মালিকপক্ষ শ্রমিক নেতা রুবেল ও মহিউদ্দিনকে ছাঁটাই করলে অন্য শ্রমিকরা ক্ষোভে ফুঁসে ওঠেন। যার কারণে শ্রমিকরা আন্দোলনে নেমেছেন। মালিকপক্ষ আগেও প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল তাদের দাবি মেনে নিয়ে ফের কর্মস্থলে কাজ করার সুযোগ দেবে। হাবিলাসদ্বীপ ইউনিয়ন শ্রমিক লীগ নেতা মো. আলী আশরাফ বলেন, মালিকপক্ষ প্রায় সময় শ্রমিকদের সঙ্গে অবিচার করে থাকে। শ্রমিক ছাঁটাই ছাড়াও বেতন-ভাতা বন্ধ না রাখার দাবি জানান তিনি।

মোস্তফা সিটি গ্রুপ অব ইন্ডাস্ট্র্রিজের সিনিয়র ডিজিএম মো. আল মামুন বলেন, বর্তমানে তাদের কোম্পানির পেপার মিলে শ্রমিক রয়েছেন ২৪৬ জন ও লবণ মিলে রয়েছেন ৬৬০ জন। তিন দিন ধরে শ্রমিকরা পেপার মিল ও লবণ মিল বন্ধ করে আন্দোলনে নেমেছে। গত তিন মাসে প্রায় ৮ কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে। শ্রমিকদের সমস্যা নিয়ে মালিক, শ্রমিক প্রতিনিধি ও শিল্প পুলিশের মধ্যস্থতায় সমঝোতা করা হবে।