টাঙ্গাইলবাসীর স্বপ্নপূরণ

প্রকাশ: ০৯ নভেম্বর ২০১৮

টাঙ্গাইল প্রতিনিধি

দীর্ঘ প্রতীক্ষার পর টাঙ্গাইলবাসীর স্বপ্ন পূরণ হয়েছে। বৃহস্পতিবার ঢাকা-টাঙ্গাইল-বঙ্গবন্ধু সেতু রুটে কমিউটার ট্রেন সার্ভিস উদ্বোধনের মধ্য দিয়ে এ স্বপ্ন বাস্তবে পরিণত হয়েছে।

এ উপলক্ষে বিকেল ৫টা ২০ মিনিটে রেলমন্ত্রী ঢাকার কমলাপুর রেলস্টেশনে এই কমিউটার ট্রেন সার্ভিসের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন। ঢাকা-টাঙ্গাইল সরাসরি ট্রেন সার্ভিস বাস্তবায়ন কমিটির আহ্বায়ক সাঈদ এম লুৎফুল্লাহ জানান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতিশ্রুত ঢাকা-টাঙ্গাইল সরাসরি ট্রেন সার্ভিস চালুর দাবিতে তাদের বাস্তবায়ন কমিটিসহ বিভিন্ন সংগঠন বিভিন্ন সময়ে আন্দোলন করেছে। মঙ্গলবার রেল মন্ত্রণালয়ের ঢাকা-টাঙ্গাইল সরাসরি ট্রেন সার্ভিস বাস্তবায়ন কমিটির নেতৃবৃন্দকে রেলমন্ত্রী আমন্ত্রণ জানান। পরে সেখানে রেলমন্ত্রী, ঢাকা-টাঙ্গাইল সরাসরি ট্রেন সার্ভিস বাস্তবায়ন কমিটি নেতৃবৃন্দের সমন্বয়ে একটি সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় বৃহস্পতিবার বিকেল ৫টা ২০ মিনেটে ঢাকা-টাঙ্গাইল কমিউটার ট্রেন সার্ভিস উদ্বোধনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

এমপি মো. ছানোয়ার হোসেন জানান, এই ট্রেন সার্ভিস চালুর মধ্য দিয়ে টাঙ্গাইলবাসীর একটি স্বপ্ন পূরণ হয়েছে। এ জন্য টাঙ্গাইলবাসী অত্যন্ত আনন্দিত। এর মধ্য দিয়ে টাঙ্গাইলবাসীকে দেওয়া প্রধানমন্ত্রীর আরেকটি প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়ন হলো।

রাত ৮টা ১৫ মিনিটে কমিউটার ট্রেন টাঙ্গাইল রেলস্টেশনে এসে পৌঁছায়। ওই ট্রেনে কয়েকশ' যাত্রী ছাড়াও এমপি ছানোয়ার হোসেন আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ ও ট্রেনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঢাকা থেকে যাত্রী হয়ে আসেন। এ সময় টাঙ্গাইলের জেলা প্রশাসক শহীদুল ইসলাম পুলিশ সুপার সঞ্জিত কুমার রায় ও আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ তাদের ফুল দিয়ে স্বাগত জানান। এ সময় রেলস্টেশনে উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক শাহজাহান আনসারী, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিবিষয়ক সম্পাদক তানভীর হাসান ছোট মনির, শহর আওয়ামী লীগের সভাপতি সিরাজুল হক আলমগীরসহ ছাত্রলীগ, যুবলীগ ও অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

টাঙ্গাইলের ভূঞাপুরে ২০১২ সালে এক সমাবেশে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বঙ্গবন্ধু সেতুর পূর্ব পাড় থেকে ঢাকা কমিউটার ট্রেন সার্ভিস চালুর প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন।