পাখির বাসা দেখাতে নিয়ে শিশু ধর্ষণ

প্রকাশ: ০৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৯      

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি

লক্ষ্মীপুরে পাখির বাসা দেখানোর কথা বলে ডেকে নিয়ে সাত বছরের এক শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে ফজলে রাব্বি নামের এক যুবকের বিরুদ্ধে। গত ২৫ জানুয়ারি সদর উপজেলার কুশাখালী ইউনিয়নের দক্ষিণ চিলাদী এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। ঘটনার ১২ দিন পর গত মঙ্গলবার ওই শিশুর মা থানায় মামলা করেন। ফজলে রাব্বি সদর উপজেলার কুশাখালী ইউনিয়নের চিলাদী এলাকার সাইফুল ইসলাম হারুনের ছেলে।

জানা যায়, গত ২৫ জানুয়ারি দুপুরে রাব্বি স্থানীয় একটি শিশুকে কোয়েল পাখির বাসা দেখাতে নিয়ে নিয়ে যায়। সেখানে স্থানীয় রফিক মেম্বারের বাড়ির পার্শ্ববর্তী একটি কালভার্টের নিচে নিয়ে শিশুটিকে ধর্ষণ করা হয়। পরে শিশুটি চিৎকার করলে রাব্বি পালিয়ে যায় এবং স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা করায়। এতে অবস্থার অবনতি হলে তাকে লক্ষ্মীপুর ও পরে নোয়াখালীর একটি প্রাইভেট হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

অভিযুক্ত রাব্বির বড় বোন মাহিনুর বেগম জানান, তাদের প্রতিবেশী অন্যায়ভাবে তার ছোট ভাই রাব্বিকে ফাঁসাতে সাত বছরের শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগ তুলেছে।

ভিকটিমের বাবা জানান, এলাকার কয়েকজন বিষয়টি মীমাংসার কথা বলে ধর্ষণের ঘটনাটি ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা করে। মামলার পর তাদের ভয়ভীতি দেখানো হচ্ছে।

দাসেরহাট পুলিশ ফাঁড়ির পরিদর্শক ও মামলার তদন্ত কর্মকর্তা মফিজ উদ্দিন জানান, রাব্বিকে আসামি করে থানায় মামলা হয়েছে। ঘটনার পর থেকেই সে পলাতক।