চাঁদা না পেয়ে শিপইয়ার্ডে সন্ত্রাসী হামলা

ককটেল বিস্ম্ফোরণ, আহত ২

প্রকাশ: ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

সীতাকুণ্ড (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি

চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে চাঁদা না পাওয়ায় শিপইয়ার্ড নির্মাণ কাজে বাধা দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। এ সময় সন্ত্রাসীরা ককটেলের

বিস্ম্ফোরণ ঘটিয়ে পুরো এলাকায় ত্রাস সৃষ্টি করে। সন্ত্রাসীদের হামলায় মোস্তফা কামাল ও তৌহিদ মুরাদ কাজল নামে ইয়ার্ডের দুই কর্মকর্তা আহত হন। তাদের চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। শনিবার সকাল

১১টার দিকে উপজেলার উত্তর ছলিমপুর সাগর উপকূলীয় এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

ইয়ার্ড মালিকের দাবি, হামলাকারীরা এলাকার চিহ্নিত সন্ত্রাসী। সরকারদলীয় নেতাদের নাম ভাঙিয়ে তারা দীর্ঘদিন ধরে চাঁদা দাবি করে আসছিল। জানা যায়, সম্প্রতি চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসক থেকে লিজ নিয়ে বিবিসি স্টিল শিপইয়ার্ড নামে একটি প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলে রাজা কাসেম নামে এক শিপ ব্রেকার্স। ইয়ার্ড অবকাঠামো নির্মাণে প্রতিদিনের মতো শনিবার সকালেও কাজ করছিলেন কয়েক শ্রমিক। সকাল ১১টার দিকে স্থানীয় চিহ্নিত কয়েক অস্ত্রধারী অতর্কিত হামলা চালায় ইয়ার্ডে। এ সময় তারা ৫-৬টি ককটেলের বিস্ম্ফোরণ ঘটিয়ে আতঙ্ক সৃষ্টি করে। সন্ত্রাসীদের হামলায় আহত হয় ইয়ার্ডের দুই কর্মকর্তা। বিবিসি শিপ ব্রেকিং ইয়ার্ড নির্মাণ কাজের দায়িত্বরত কর্মকর্তা শফিউল আলম বলেন, অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীরা ইয়ার্ডে হামলা চালায়। তারা দীর্ঘদিন ধরে ইয়ার্ড মালিকের কাছে চাঁদা দাবি করে আসছিল। চাঁদা না দেওয়ায় এ হামলা চালায় তারা। বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক পরিষদের কেন্দ্রীয় নির্বাহী সদস্য ও ইয়ার্ড মালিক শিল্পপতি রাজা কাসেম বলেন, চাঁদা না দেওয়ায় সন্ত্রাসীরা শিপইয়ার্ডে হামলা চালিয়ে ককটেলের বিস্ম্ফোরণ ঘটায়। এ ঘটনায় আমাদের দু'জন কর্মকর্তা আহত হন। সন্ত্রাসী জীবন, রিদোয়ান, রহমান ও ফাহিমের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ পাঠানো হয়েছে বলে জানান তিনি।

সীতাকুণ্ড মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা দেলওয়ার হোসেন বলেন, শিপইয়ার্ড নির্মাণে বাধা দেওয়ার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। অভিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানান তিনি।