চোর সন্দেহে গণপিটুনি দু'জন নিহত

কালিয়াকৈর

প্রকাশ: ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯      

কালিয়াকৈর (গাজীপুর) প্রতিনিধি

কালিয়াকৈর উপজেলার বরিয়াবহ গ্রামে গরুচোর সন্দেহে গ্রামবাসীর গণপিটুনিতে দু'জন নিহত হয়েছেন। এ সময় চোরদের হামলায় আহত হয়েছেন এক কৃষক। গত শনিবার ভোরে এ ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় কালিয়াকৈর থানায় হত্যা ও চুরির ঘটনায় পৃথক  মামলা হয়েছে।

নিহতরা হলেন বগুড়ার আদমদীঘি থানার ঝিনইড় এলাকার জিল্লুর রহমান ওরফে সাগর। তিনি সাভারের আশুলিয়ার একটি পোশাক কারখানায় কাজ করতেন। আরেকজনের নাম কবীর হোসেন। তার বয়স আনুমানিক ৩২ বছর। তবে তার পরিচয় জানা যায়নি।

উপজেলার বরিয়াবহ, নাওলা, কাঞ্চাপুর, আটাবহসহ বিভিন্ন এলাকায় বেশ কিছুদিন ধরে গরু চুরির ঘটনা বেড়েছে। গত দুই মাসে শুধু বরিয়াবহ এলাকা থেকে বেশ কয়েকটি গরু চুরি হয়েছে। চুরি ঠেকাতে মাসখানেক ধরে বরিয়াবহ এলাকার গরু পালনকারী কৃষকরা রাতে পাহারার ব্যবস্থা করে। প্রতিরাতে ৮-১০ কৃষক পাহারা দেন। শুক্রবার রাত ২টার দিকে বরিয়াবহ এলাকার আবদুস সামাদের বাড়িতে হানা দেয় এক দল চোর। তারা একটি গরু চুরির চেষ্টা করে। বিষয়টি টের পেয়ে বাড়ির মালিক সামাদ বেরিয়ে এলে চোরের দল তার ওপর হামলা চালায়। এ সময় তার চিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এলে চোরেরা পালানোর চেষ্টা করে। এ সময় মসজিদের মাইকে এলাকায় চোর ঢুকেছে জানিয়ে মাইকিং করা হয়। এরপর এলাকাবাসী জড়ো হয়ে চারদিকে ঘেরাও করে। পরে ধাওয়া দিয়ে পাশের চোর দলের সদস্য সাগর ও কবীরকে আটক করা হয়। ভোরে উত্তেজিত জনতা ওই দু'জনকে গণপিটুনি দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই সাগর নিহত হয়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে তার লাশ উদ্ধার করে। গুরুতর অবস্থায় কবীরকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

কালিয়াকৈর থানার ওসি আলমগীর হোসেন মজুমদার জানান, নিহতরা আসলেই গরু চোর কি-না বিষয়টি তদন্ত করা হচ্ছে।