প্রধান শিক্ষককে তিরস্কার করলেন সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী

প্রকাশ: ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

মুক্তাগাছা (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি

বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় শিক্ষার্থীরা শুদ্ধভাবে জাতীয় সঙ্গীত গাইতে না পারায় প্রধান শিক্ষককে তিরস্কার করলেন সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ বাবু। শনিবার উপজেলার রঘুনাথপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের বার্ষিব ক্রীড়া প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠানে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় প্রধান  শিক্ষককে ভবিষ্যতের জন্য সতর্কও করলেন প্রতিমন্ত্রী।

সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ বাবু গতকাল তার নির্বাচনী এলাকা মুক্তাগাছার বিভিন্ন স্কুলের বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা ও একটি সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে অংশ নেন। ওইদিন দুপুর সাড়ে ১২টায় রঘুনাথপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত হন প্রতিমন্ত্রী। ওই স্কুলের ক্রীড়া প্রতিযোগিতার শুরুতে শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণে জাতীয় সঙ্গীতের মাধ্যমে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করেন প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ বাবু। জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশনের সময় শিক্ষার্থীরা সঠিকভাবে বলতে পারেনি। ত্রুটির্পূণভাবেই জাতীয় সঙ্গীত গাওয়া শেষ করে শিক্ষার্থীরা। পরে মন্ত্রী ওই স্কুলের প্রধান শিক্ষক আজহারুল ইসলামকে তিরস্কার করেন।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মুক্তাগাছার ইউএনও সুবর্ণা সরকার, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি আজিজুল হক ইদু, হোসেন আলী সরকার, সাধারণ সম্পাদক বিল্লাল হোসেন সরকার, স্কুলের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি ও ইউপি চেয়ারম্যান সিদ্দিকুজ্জামান সিদ্দিক, মুক্তাগাছা শহর আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক আরব আলী, উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক জাহাঙ্গীর আলম, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুল আলম মনি প্রমুখ।

এর আগে পুলিশের সেবা সপ্তাহের উদ্বোধন, মোগলটুল উচ্চ বিদ্যালয়ের বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা ও বিরাশী উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ বাবু। তিনি এসব অনুষ্ঠানে মুক্তাগাছায় হাইটেক পার্ক, সরকারি শহীদ স্মৃতি কলেজকে বিশ্ববিদ্যালয়ে রূপান্তর ও শিল্পকলা একাডেমি ভবন নির্মাণসহ বিভিন্ন স্কুলের নতুন ভবন নির্মাণের ঘোষণা দেন।