পূর্বধলায় স্ত্রী লাভলী আক্তারকে হত্যার দায়ে স্বামী ফারুক মিয়াকে ফাঁসির আদেশ এবং মামলার অন্য আসামি শাশুড়ি মাজেদা বেগমকে খালাসের আদেশ দিয়েছেন আদালত। নেত্রকোনা জেলা ও দায়রা জজ কেএম রাশেদুজ্জামান রাজা বুধবার প্রধান আসামির অনুপস্থিতিতে এ রায় দেন। ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি ফারুক মিয়া পূর্বধলা উপজেলার আগিয়া ইউনিয়নের দক্ষিণ কালডোয়ার গ্রামের তোফাজ্জল হোসেনের ছেলে।

পূর্বধলার কালডোয়ার গ্রামের ফারুক মিয়া বিয়ের কয়েক মাস পার হতে না হতেই পারিবারিক কলহের জেরে ২০০৯ সালের ১ সেপ্টেম্বর ভোররাতে স্ত্রী লাভলী আক্তারকে শ্বাসরোধে হত্যা করে। পরদিন সকালে খবর পেয়ে লাভলীর বাবা জয়নাল আবেদীন পুলিশ নিয়ে লাশ উদ্ধার করে।

মন্তব্য করুন