ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে যত্রতত্র গাড়ি পার্কিং

সীতাকুণ্ড

প্রকাশ: ১৫ মার্চ ২০১৯      

এম সেকান্দর হোসাইন, সীতাকুণ্ড

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে যত্রতত্র গাড়ি পার্কিং

সীতাকুণ্ডে মহাসড়কে পার্ক করা গাড়ি - সমকাল

যত্রতত্র গাড়ি পার্কিংয়ে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে সীতাকুণ্ডের বিভিন্ন স্থানে প্রায়ই সৃষ্টি হচ্ছে যানজট। ঘটছে দুর্ঘটনা। প্রাণ হারাচ্ছেন নিরীহ পথচারীসহ শ্রমিক-কর্মচারীরা। অনেক প্রাণহানির ঘটনা ঘটলেও রহস্যজনক কারণে অবৈধ পার্কিং বন্ধে হাইওয়ে পুলিশ উদাসীন।

অনুসন্ধানে জানা গেছে, এই অবৈধ পার্কিংয়ের কারণে গত তিন মাসে সড়কে প্রাণ গেছে সাতজনের। গাড়ির বিরুদ্ধে মামলা দিয়েও পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনা যাচ্ছে না। হাইওয়ে পুলিশ বলছে, গত মঙ্গলবার অবৈধ পার্কিংয়ের অভিযোগে আটটি গাড়ির বিরুদ্ধে মামলা দেওয়া হয়েছে। গত তিন মাসে ৫ শতাধিক গাড়ির বিরুদ্ধে এ অভিযোগে মামলা ও জরিমানা করা হয়েছে।

সীতাকুণ্ড উপজেলাধীন ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কটি বন্দরনগরী চট্টগ্রামের প্রবেশদ্বারে অবস্থিত হওয়ায় সবসময় এটি ব্যস্ত থাকে। এ সড়কে প্রতিদিন ৩০-৩৫ হাজারের মতো যানবাহন চলাচল করে। গুরুত্বপূর্ণ সড়ক হওয়া সত্ত্বেও ব্যস্ততম এই সড়কের আশপাশে প্রতিদিনই বেশ কিছু যানবাহন অবৈধভাবে পার্কিংয়ে থাকে। এতে সড়কটি আরও সংকীর্ণ হয়ে পড়ে। এ কারণে প্রায়ই ঘটছে দুর্ঘটনা।

সরেজমিন ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক ঘুরে দেখা গেছে, উপজেলার বেশ কিছু পয়েন্টে শত শত যানবাহন অবৈধভাবে পার্ক করা হয়েছে। এর মধ্যে পাক্কার রাস্তার মাথা বিএসআরএম মিল গেটের রাস্তার উভয় পাশে, মাদামবিবিরহাট, ভাটিয়ারী স্টেশন এলাকায় বাজারের উভয় পাশে বেশ কিছু ক্রেন ও ট্রাক দাঁড়িয়ে থাকে সবসময়। দখল হয়ে গেছে বাজারের ফুটপাতও। সেখানে বসেছে ভ্রাম্যমাণ বেশ কিছু দোকানপাট। একইভাবে অবৈধ পার্কিংয়ে অঘোষিত ট্রাকস্ট্যান্ডে পরিণত হয়েছে কুমিরা গার্লস স্কুল অ্যান্ড কলেজের সামনের মহাসড়ক। এখানে প্রতিদিন পণ্যবাহী অনেক ট্রাক-লরি দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা যায়। এ ছাড়া রয়েল সিমেন্ট কারখানার সামনের মহাসড়ক, কুমিরা আন্তর্জাতিক ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় সংলগ্ন সাবরিনা রেস্তোরাঁর সামনের সড়কসহ বিভিন্ন স্থানে অবৈধ  পার্কিংয়ে প্রায়ই দুর্ঘটনা ঘটে বলে স্থানীয়রা জানান।

বারআউলিয়া হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আহসান হাবীব বলেন, অবৈধ গাড়ির পার্কিংয়ের দায়ে গত মঙ্গলবারও আটটি মামলা দেওয়া হয়েছে। এ অভিযোগে গত তিন মাসে ৫ শতাধিক মামলা হয়েছে। পুলিশের বিরুদ্ধে দেওয়া অভিযোগও অস্বীকার করেন তিনি।