উপজেলা পরিষদ নির্বাচন

সংঘর্ষ এড়াতে সন্ধ্যার পর ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখার নির্দেশ

মিঠাপুকুর

প্রকাশ: ১৬ মার্চ ২০১৯      

মিঠাপুকুর (রংপুর) প্রতিনিধি

উপজেলা পরিষদ নির্বাচন ঘিরে রংপুরের মিঠাপুকুরে আওয়ামী লীগ ও স্বতন্ত্র প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ এড়াতে সন্ধ্যার পর ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছে উপজেলা প্রশাসন। গত মঙ্গলবার থেকে চার দিন ধরে সন্ধ্যার পর ভুতুড়ে এলাকায় পরিণত হয়েছে উপজেলার বালুয়া বন্দর ও নানকর বাজার এলাকা।

জানা গেছে, ২৪ মার্চ তৃতীয় ধাপে এই উপজেলার নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জাকির হোসেন সরকার নৌকা প্রতীকে নির্বাচন করছেন। আওয়ামী লীগ নেতা অধ্যক্ষ মেসবাহুর রহমান প্রধান মঞ্জু স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে আনারস প্রতীকে নির্বাচনী মাঠে লড়ছেন। অপর স্বতন্ত্র প্রার্থী জাপা নেতা আবদুল হালিম মণ্ডল মোটরসাইকেল প্রতীকে নির্বাচন করছেন। নির্বাচন ঘিরে উপজেলার বিভিন্ন স্থানে নৌকা এবং স্বতন্ত্র প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটছে। বালুয়া মাসিমপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সেলিম চৌধুরী ও স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক রবিচন্দ্র বর্মণ বলেন, নৌকা মার্কার প্রার্থীর লোকজন আমাদের সমর্থকদের ভয়ভীতি প্রদর্শন করছে।

এমন পরিস্থিতিতে যে কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে বালুয়া বন্দর ও নানকর বাজারে গত মঙ্গলবার সন্ধ্যার পর থেকে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখার জন্য নির্দেশ দিয়েছে উপজেলা প্রশাসন। নির্বাচন পর্যন্ত এই নির্দেশ মেনে চলার অনুরোধ জানানো হয়েছে। আওয়ামী লীগের প্রার্থী জাকির হোসেন সরকার বলেন, নির্বাচনী কার্যালয়ে নয়, পাশের বাড়ির লোকজন রান্নার জন্য লাকড়ি এনে রেখেছিল। স্বতন্ত্র প্রার্থীর সমর্থকদের ওপর হামলার কথা অস্বীকার করে বলেন, তারাই আমার লোকজনের ওপর হামলা চালিয়েছে। স্বতন্ত্র প্রার্থী অধ্যক্ষ মেসবাহুর রহমান প্রধান মঞ্জু বলেন, নির্বাচনে পরাজয়ের ভয়ে জাকির হোসেন সরকার বেপরোয়া হয়ে উঠেছেন। তার সমর্থকরা আমার কর্মী-সমর্থকদের ওপর হামলা চালাচ্ছে।

ইউএনও মামুন অর রশীদকে বলেন, বিভিন্ন স্থানে দুই প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষের খবর পাওয়া যাচ্ছিল। এ পরিস্থিতিতে সংঘর্ষ এড়াতে বালুয়া বন্দর ও নানকর বাজারে সন্ধ্যার পর ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখার জন্য মৌখিকভাবে অনুরোধ জানিয়েছি।