যুবকের দুই পা ভেঙে দিল সন্ত্রাসীরা

প্রকাশ: ১৬ মার্চ ২০১৯      

বুড়িচং (কুমিল্লা) প্রতিনিধি

শ্বশুরবাড়ি যাওয়ার পথে রাস্তায় অটোরিকশা থামিয়ে মো. মামুন রানা নামে মালদ্বীপ ফেরত এক যুবককে পিটিয়ে দুই পা ভেঙে দিয়েছে সন্ত্রাসীরা। এ সময় সন্ত্রাসী দল মামুনের মাথায় ও পায়ে কুপিয়ে গুরুতর আহত করেছে। বর্তমানে মামুন মুমূর্ষু অবস্থায় কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

গতকাল শুক্রবার ঘটনাটি ঘটেছে কুমিল্লার ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলার মালাপাড়া গ্রামে। এ ঘটনায় আহত যুবকের মা হোসনেয়ারা বেগম বাদী হয়ে ৫ জনের নাম উল্লেখ করে থানায় মামলা করেছেন।

মামলার বিবরণে জানা যায়, মালাপাড়া গ্রামের শাহজাহান মিয়ার ছেলে মো. মামুন রানা সম্প্রতি মালদ্বীপ থেকে ছুটিতে বাড়ি আসে। তিনি তার নিজ বাড়ি থেকে অটোরিকশায় দেবীদ্বার উপজেলার জাফারগঞ্জ শ্বশুরবাড়ি যাওয়ার পথে একই এলাকার মৃত আ. রশীদের ছেলে মিজান ডাকাত, শাহ আলম মিয়ার ছেলে আবু কাউসার, আ. মান্নানের ছেলে রোকন ভূঁইয়া, জজু মিয়ার ছেলে মো. রনি, সাধন চন্দ্র সূত্রধরের ছেলে স্বপন চন্দ্র সূত্রধরসহ অজ্ঞাতপরিচয় আরও ২-৩ জনের সশস্ত্র একটি সন্ত্রাসী দল তার অটোরিকশার গতিরোধ করে। এ সময় সন্ত্রাসীরা মামুনকে টেনেহিঁচড়ে নামিয়ে লোহার রড দিয়ে পিটিয়ে দুটি পা ভেঙে ফেলে। এতে মামুন মাটিতে লুটিয়ে পড়লে সন্ত্রাসীরা কুপিয়ে তাকে জখম করে। মামুনের চিৎকারে লোকজন এগিয়ে এলে সন্ত্রাসীরা চলে যায়। পরে মামুনকে উদ্ধার করে প্রথমে কুমিল্লা সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত ডাক্তার উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠান। এ ঘটনায় মামুনের মা বাদী হয়ে থানায় মামলা করেছেন।