পরিবহন ধর্মঘটে দুর্ভোগ

লামা-আলীকদম চকরিয়া সড়ক

প্রকাশ: ১৩ এপ্রিল ২০১৯

লামা (বান্দরবান) প্রতিনিধি

পূর্ব ঘোষণা ছাড়াই লামা-আলীকদম-চকরিয়া সড়কে পরিবহন ধর্মঘট শুরু করেছে পরিবহন মালিক সমিতি। বাংলা নববর্ষ উপলক্ষে লামা-আলীকদম ও বমুবিলছড়ি এলাকার কয়েক হাজার ঘরমুখো মানুষ  এই ধর্মঘটের কারণে বেকায়দায় পড়েছেন।

দেশের বিভিন্ন স্থানে কর্মরত অনেকে সপরিবারে নববর্ষের ছুটি কাটাতে ঢাকাসহ নানা স্থান থেকে চকরিয়া এসে আটকা পড়েছেন। ধর্মঘটের কারণে অনেকে লামা, আলীকদম ও বমুবিলছড়ি ঢুকতে না পেরে নিজ নিজ কর্মস্থলে ফেরত গেছেন।

ধর্মঘটের কারণ জানতে চাইলে পরিবহন মালিক সমিতির সভাপতি জামশেদ উদ্দিন বাবুল জানান, আলীকদমের কিছু প্রভাবশালী ব্যক্তি পরিবহন মালিক-শ্রমিক সমিতিকে না জানিয়ে বিআরটিসি পরিবহন চালু করার প্রতিবাদে তাৎক্ষণিকভাবে এই ধর্মঘটের ডাক দেওয়া হয়েছে। জনদুর্ভোগ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, 'আমরা সমঝোতায় আসতে প্রস্তুত আছি। যারা আমাদের সঙ্গে আলাপ-আলোচনা না করে একতরফা সিদ্ধান্ত নিয়ে বিআরটিসির  গাড়ি চালুর উদ্যোগ নিয়েছেন, তাদের এগিয়ে আসতে হবে।'

লামার ইউএনও নূর-এ-জান্নাত রুমী বলেন, 'পরিবহন মালিক-শ্রমিক সমিতির সঙ্গে লামা উপজেলা প্রশাসনের কোনো জটিলতা নেই। তাদের অভিযোগ আলীকদমের সঙ্গে। তাই তারা চাইলে চকরিয়া-লামার মধ্যে পরিবহন চালু রাখতে পারেন। বিষয়টি তাদের সকাল থেকেই আমরা বলে আসছি।' এ বিষয়ে আলীকদম উপজেলা নির্বাহী অফিসার নাজিমুল হায়দারের সঙ্গে বার বার যোগাযোগের চেষ্টা করেও তাকে পাওয়া যায়নি।