কিয়ামত উল্লাহ কলেজ ছাত্রলীগ সভাপতির বিরুদ্ধে অধ্যক্ষকে হত্যার হুমকি

প্রকাশ: ১৬ মে ২০১৯      

জামালপুর প্রতিনিধি

কলেজ ক্যাম্পাসে চাঁদাবাজি ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বকশীগঞ্জ সরকারি কিয়ামত উল্লাহ কলেজের অধ্যক্ষসহ শিক্ষক-কর্মচারীদের বিরুদ্ধে অশালীন, মানহানিকর মন্তব্য ও প্রাণনাশের হুমকির প্রতিবাদে মানববন্ধন ও সংবাদ সম্মেলন করেছে কলেজ কর্তৃপক্ষ। বুধবার দুপুরে কলেজ ক্যাম্পাসে শিক্ষক পরিষদের ব্যানারে অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে কলেজ ছাত্রলীগ সভাপতি ফরহাদ রেজা ও সাধারণ সম্পাদক আদনান আকাশসহ এর সঙ্গে জড়িতদের শাস্তির দাবি

জানানো হয়।

মানববন্ধন শেষে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে শিক্ষক পরিষদের সভাপতি অধ্যক্ষ অধ্যাপক ইদ্রিস আলী লিখিত বক্তব্যে বলেন, চলমান ডিগ্রি পরীক্ষার ফরম পূরণকে কেন্দ্র করে গত ৯ মে কলেজ ছাত্রলীগ সভাপতি ফরহাদ রেজা ও সাধারণ সম্পাদক আদনান আকাশের অনুসারীরা তার কাছে ২০ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করে। টাকা দিতে অস্বীকার করায় অধ্যক্ষ ও ফরম পূরণ কমিটির সদস্যদের অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ ও অধ্যক্ষকে প্রাণনাশের হুমকি দেয় তারা। একপর্যায়ে তারা পরীক্ষার্থীদের ফরম পূরণ কার্যক্রম বন্ধ করে দেয়। এতে কলেজে ভীতিকর পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়। নিরাপত্তাহীনতায় পড়েন শিক্ষক-কর্মচারীরা। খবর পেয়ে পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এ ঘটনায় কলেজের কর্ম পরিবেশ স্বাভাবিক রাখতে ও শিক্ষক-কর্মচারীদের নিরাপত্তার স্বার্থে ১৩ মে রাতে কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি ফরহাদ রেজা ও সাধারণ সম্পাদক আদনান আকাশসহ অজ্ঞাতনামা আরও ৮-১০ জনকে আসামি করে বকশীগঞ্জ থানায় চাঁদাবাজি মামলা দায়ের করেন তিনি। মামলা দায়েরের পর আসামিরা অধ্যক্ষসহ শিক্ষক-কর্মচারীদের প্রাণনাশের হুমকি ও তাদের বিরুদ্ধে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অশালীন, আপত্তিকর ও মানহানিকর মন্তব্য করে আসছে। এর প্রতিবাদ জানিয়ে বুধবার দুপুরে শিক্ষক পরিষদের ব্যানারে মানববন্ধন ও সংবাদ সম্মেলন করেন শিক্ষকরা।

ওসি একেএম মাহবুবুল আলম বলেন, আসামিদের গ্রেফতারে

চেষ্টা চলছে।