ত্রিশালের বালিপাড়া বিয়ারা এলাকায় ব্রহ্মপুত্র নদ থেকে শামীম আকতার বাপ্পি নামে এক শিক্ষার্থীর লাশ উদ্ধার করেছে ত্রিশাল থানা পুলিশ।

ময়মনসিংহ শহরের আকুয়ায় খালার বাসায় থেকে নাসিরাবাদ কলেজে উন্মুক্ত শাখার বিএসএসে পড়ছিলেন বাপ্পি। ৪ জুলাই বৃহস্পতিবার একটি ফোন কলে বাসা থেকে বের হন বাপ্পি। বাসা থেকে বের হওয়ার সময় তার মা তার খালার বাসাতেই ছিলেন। বিকেল ৩টার দিকে মা রওশন আরা বাপ্পিকে ফোন দিলে তিনি মাকে গাঙ্গিনারপাড় আছেন বলে জানান। এরপর গত দুই দিনেও তার সঙ্গে ফোনে বা অন্য কোনোভাবে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।

গতকাল দুপুরে ত্রিশাল উপজেলার বালিপাড়া ইউনিয়নের বিয়ারা গ্রাম এলাকায় ব্রহ্মপুত্র নদে একটি লাশ ভাসতে দেখে স্থানীয়রা পুলিশে খবর দেয়। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। পুলিশ উদ্ধার হওয়া লাশ থেকে ভোটার আইডি কার্ডের মাধ্যমে তার পরিচয় জানতে পেরে গৌরীপুর থানা পুলিশকে জানালে তারা বাপ্পির স্বজনের সঙ্গে যোগাযোগ করে। পরে স্বজনরা ত্রিশাল থানায় এসে লাশ শনাক্ত করেন। নিহত বাপ্পির বাড়ি গৌরীপুর উপজেলার ডোহাকলা ইউনিয়নের পায়রা গ্রামে। তিনি ডোহাকলা ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান জয়নাল আবদিন ওরফে জনাব আলীর ছেলে।

এসআই সোহরাব আলী জানান, ভোটার আইডি কার্ডের মাধ্যমে তার পরিচয় জানতে পেরে গৌরীপুর থানা পুলিশকে জানালে তারা বাপ্পির স্বজনের সঙ্গে যোগাযোগ করে। পরে তার বাবা জয়নাল আবদিন ও স্বজনরা ত্রিশাল থানায় এসে লাশ শনাক্ত করেন।

মন্তব্য করুন