বোয়ালখালী-কালুরঘাট সেতু দ্রুত নির্মাণের দাবিতে অনশন কর্মসূচি পালন করেছেন বোয়ালখালীর মুক্তিযোদ্ধারা। শনিবার সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত পূর্ব কালুরঘাটে এ কর্মসূচি পালন করা হয়। এতে মুক্তিযোদ্ধারা ছাড়াও সামাজিক, সাংস্কৃতিক, পেশাজীবী, ধর্মীয়, রাজনৈতিক সংগঠনসহ সর্বস্তরের মানুষ অংশ নেন। তাঁদের হাতে ছিল ব্যানার-ফেস্টুন-প্ল্যাকার্ড। তাতে শোভা পাচ্ছিল- 'দাবি শুধু একটাই, বোয়ালখালী-কালুরঘাট সেতুর দ্রুত বাস্তবায়ন চাই।'

অনশন কর্মসূচিতে মুক্তিযোদ্ধা ও বিভিন্ন সংগঠনের নেতারা বক্তব্য দেন। এ ছাড়া প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করা হয়। কর্মসূচিতে অংশগ্রহণকারী মুক্তিযোদ্ধারা জানান, প্রধানমন্ত্রী কর্ণফুলী নদীর ওপর কালুঘাটে রেল-কাম সড়ক সেতু বাস্তবায়নে যে নীতিগত অনুমোদন দিয়েছেন, তা দ্রুত বাস্তবায়নের দাবিতেই এ কর্মসূচি। বিকেল ৪টায় শরবত পান করিয়ে মুক্তিযোদ্ধাদের অনশন ভঙ্গ করান চট্টগ্রাম-৮ আসনের সংসদ সদস্য মইনউদ্দীন খান বাদল।

চট্টগ্রামের গণমানুষের প্রাণের দাবিতে একাত্তরের রণাঙ্গনের সাথী মুক্তিযোদ্ধাদের অনশন কর্মসূচিকে স্বাগত জানিয়ে তিনি বলেন, 'এ দাবি বাস্তবায়ন না হলে আগামী ডিসেম্বরে সংসদ থেকে সরে দাঁড়াব।' এ অনশন কর্মসূচির সঙ্গে সংহতি প্রকাশ করেছেন সাতকানিয়া মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কমান্ডার এলএমজি তাহের, বোয়ালখালী- কালুরঘাট সেতু বাস্তবায়ন পরিষদ, বোয়ালখালী প্রেস ক্লাব, বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ-বোয়ালখালী শাখার সভাপতি শ্যামল বিশ্বাস, বোয়ালখালী উন্নয়ন সংগ্রাম পরিষদের আহ্বায়ক সৈয়দুল আলম, পৌর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি মো. রিয়াদ হোসেনসহ নেতৃবৃন্দ।

মন্তব্য করুন