জমি নিয়ে বিরোধ মঠবাড়িয়ায় ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে জখম

প্রকাশ: ১০ জুলাই ২০১৯      

মঠবাড়িয়া (পিরোজপুর) প্রতিনিধি

জমি নিয়ে বিরোধের জেরে মঠবাড়িয়া উপজেলার সাফা কলেজের পশ্চিম পাশে সড়কের ওপর সোমবার রাতে লিটন হাওলাদার নামে এক ব্যবসায়ীকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে জখম করেছে প্রতিপক্ষ। রাতেই এলাকাবাসী গুরুতর আহত লিটনকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপেল্গক্সে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাকে বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে স্থানান্তরের পরামর্শ দেন। এ ঘটনায় রাতে পুলিশ ইব্রাহীম খলিল নামে এক যুবককে আটক করেছে।

আহতের বাবা ধানীসাফা ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য জাহাঙ্গীর হোসেন হাওলাদার জানান, তার চাচাতো ভাই সোনা মিয়া চৌকিদারের সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরে জমি নিয়ে বিরোধ চলছিল। সম্প্রতি অনুষ্ঠিত উপজেলা নির্বাচন নিয়ে এ বিরোধ আরও চরম আকার ধারণ করে। রাতে লিটন সাফা বাজারের দোকান বন্ধ করে বাড়ি ফিরছিলেন। এ সময় সোনা মিয়া চৌকিদার ও তার ছেলে বাবুলের নেতৃত্বে ১৪-১৫ জন ধারালো অস্ত্র দিয়ে তাকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে গুরুতর জখম করেছে। নবনির্বাচিত উপজেলা চেয়ারম্যান মো. রিয়াজ উদ্দিন লিটনকে তার কর্মী দাবি করে বলেন, নৌকা সমর্থক যুবলীগ নেতা ইকবাল মুন্সি, আওয়ামী লীগ নেতা আবু সাঈদ ও বাচ্চু ব্যাপারির ইন্ধনে এ হামলার ঘটনা ঘটেছে। যদিও ধানীসাফা ইউনিয়ন যুবলীগ সভাপতি ইকবাল মুন্সি এ ঘটনাটি পারিবারিক বিরোধ দাবি করে বলেন, সড়ক দুর্ঘটনায় আহত হয়ে আমি দীর্ঘদিন ধরে অসুস্থ। এ ঘটনার সঙ্গে আমি জড়িত নই।