ময়মনসিংহে ইউপি নির্বাচন কার ভুলে শেষ মুহূর্তে ভোট স্থগিত

প্রকাশ: ১২ জুলাই ২০১৯

ময়মনসিংহ ব্যুরো

দুই চেয়ারম্যান প্রার্থীর প্রতীক অদল-বদল হওয়ায় ময়মনসিংহ সদর উপজেলার সিরতা ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) নির্বাচন স্থগিত হয়ে গেছে। প্রার্থীরা বলছেন, নির্বাচনী কর্মকর্তাদের ভুলে প্রতীক অদল-বদল হয়েছে। আর রিটার্নিং কর্মকর্তা বলছেন, প্রার্থীরা ভুল করেছেন। তাদের দায় নেই।

স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী শহিদুল ইসলাম জানিয়েছেন, তিনি এবং আরেক স্বতন্ত্র প্রার্থী কাজী আলী আকবর দু'জনই আনারস প্রতীক চেয়েছিলেন। পরে শহিদুল আনারসের দাবি ছেড়ে দেন। তাকে চশমা প্রতীক বরাদ্দ দেওয়া হয়। বরাদ্দের টোকেন তার কাছে রয়েছে। আলী আকবরকে আনারস প্রতীক বরাদ্দ দেওয়া হয়। তিনি চশমা প্রতীকে ভোটের প্রচার চালান। আনারস প্রতীকে ভোটের প্রচার চালান আলী আকবর।

কিন্তু বিপত্তি বাধে ভোটের আগের রাতে। গত বুধবার মধ্যরাতে শহিদুল জানতে পারেন, ব্যালট পেপারে তার নামের পাশে চশমা নয়, আনারস প্রতীক রয়েছে। আর আলী আকবরের নামের পাশে ছাপা হয়েছে চশমা প্রতীক। দুই প্রার্থী মধ্যরাতে শরণাপন্ন হন নির্বাচনী কর্মকর্তাদের। দীর্ঘ বৈঠকের পর স্থগিত হয় গতকালের নির্বাচন। ইউপি সদস্য পদের ভোটও স্থগিত করা হয়েছে।

রিটার্নিং কর্মকর্তা সৈয়দা শারমিন সুলতানা বলেছেন, তাদের ভুল নেই। প্রার্থীরা ভুল প্রতীকে ভোটের প্রচার চালিয়েছেন। তারপরও আইন-শৃঙ্খলার অবনতির কথা বিবেচনা করে নির্বাচন স্থগিত করা হয়েছে।

শহিদুল ইসলাম বলেন, তাকে চশমা প্রতীক বরাদ্দ করার চিঠি তার কাছে রয়েছে। আলী আকবর বলেন, তাকে আনারস প্রতীক বরাদ্দ করে দেওয়া চিঠি রয়েছে।