নির্বাচন নিয়ে বিরোধ বিজয়নগরে দু'দল গ্রামবাসীর সংঘর্ষে আহত ২০

প্রকাশ: ১৬ জুলাই ২০১৯      

নিজস্ব প্রতিবেদক, ব্রাহ্মণবাড়িয়া

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগরে নির্বাচন নিয়ে বিরোধে দু'দল গ্রামবাসীর মধ্যে সংঘর্ষে ২০ জন আহত হয়েছে। গত রোববার রাতে উপজেলার পত্তন ইউনিয়নের মনিপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

এলাকাবাসী ও পুলিশ জানায়, গত ১৮ জুন অনুষ্ঠিত বিজয়নগর উপজেলা পরিষদ নির্বাচন নিয়ে পত্তন ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান তাজুল ইসলাম ও একই এলাকার ইউপি সদস্য সেলিম মিয়ার অনুসারীদের মধ্যে বিরোধ চলে আসছিল। তাজুল ইসলামের অনুসারীরা নৌকা মার্কা এবং সেলিম মেম্বারের অনুসারীরা ঘোড়া প্রতীকের সমর্থক ছিলেন।

অভিযোগ রয়েছে, নির্বাচন চলাকালে ঘোড়া প্রতীকের প্রচারণা চলার সময় তাজুল ইসলামের অনুসারীরা প্রচার মাইক ও ব্যাটারি নিয়ে যায়। এ বিষয়ে পরে সালিশ হলে নৌকার সমর্থকরা মাইক ফেরত দিলেও ব্যাটারি দেয়নি। এ ঘটনার জের ধরে গত রোববার সন্ধ্যায় মনিপুর বন্দর বাজারে সেলিম মেম্বারের অনুসারী মোবারক এবং তাজুল ইসলামের ছোট ভাই মনার মধ্যে বাদানুবাদ হয়। এ ঘটনার জের ধরে রাতে উভয় পক্ষের লোকজন দেশীয় অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। এতে উভয় পক্ষের ২০ জন আহত হয়। তাদের মধ্যে মাহফুজ, জুবনা বেগম, আছেনা বেগম, ছুট্টু মিয়া, শাহিনুর বেগম, খালেক মিয়া, নূরুল ইসলাম, মন মিয়া, হোসনে আরা, সাদেকুল ইসলাম, মোবারক, সুমন, জীবন মিয়া, স্বপ্না বেগম, ইমন, মোস্তাফিজুর রহমানকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

বিজয়নগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ফয়জুল আজিম বলেন, এ ঘটনায় সোমবার বিকেল পর্যন্ত থানায় কোনো মামলা হয়নি।